Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

শিশু যৌন নিপীড়নের নতুন অভিযোগ মাইকেল জ্যাকসনের বিরুদ্ধে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৯, ৩:৫৩ পিএম

কিংবদন্তী গায়ক মাইকেল জ্যাকসনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির যে অভিযোগ তোলা হয়েছে, তাকে ‘চূড়ান্ত রকমের বিশ্বাসঘাতকতা’ বলে উল্লেখ করেছেন তার ভাইয়ের ছেলে তাজ জ্যাকসন। মাইকেল জ্যাকসন যদি তার বিরুদ্ধে আনা এই অভিযোগের কথা জানতে পারতেন তাহলে হয়তো তিনি কান্নায় ভেঙে পড়তেন বলে মন্তব্য করেছেন তাজ জ্যাকসন।
সম্প্রতি ‘লিভিং নেভারল্যান্ড’ নামে একটি তথ্যচিত্রে ওয়েড রবসন ও জেমস সেফচাক দাবি করেন যে অনেক বছর আগে শৈশবকালে মাইকেল জ্যাকসন তাদেরকে অনেকবার যৌন হয়রানি করেছিলেন। সেই তথ্যচিত্রের প্রসঙ্গে তাজ জ্যাকসন বলেন, অভিযোগগুলো ‘বেদনাদায়ক’, কিন্তু জনপ্রিয় এই গায়কের ভাবমূর্তিতে এর দীর্ঘমেয়াদী কোন প্রভান থাকবে না।
‘আমি মনে করি এই কলঙ্ক খুবই সাময়িক। সবার আগে আমি বিশ্বাস করি যে সত্যি একদিন বেরিয়ে আসবেই। হয়তো খানিকটা সময় লাগবে। এমন হয়েছে যে কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ তোলা হয়েছে এবং বছর দশেক বাদে সত্যি কথাটার বেরিয়ে এসেছে।’ রেডিও ওয়ান নিউজবিটকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন তাজ।
‘লিভিং নেভারল্যান্ড’ নামের তথ্যচিত্রটিতে ওয়েড রবসন এবং জেমস সেফচাক দাবি করেন যে মাইকেল জ্যাকসনের হাতে যখন তারা যৌন নিপীড়নের শিকার হন, তখন তাদের বয়স ছিল খুবই কম। এই দু’জন বিবিসিকে বলেন যে কয়েক শতবার তারা যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন, আর সময়কাল ছিলো তাদের সাত থেকে ১০ বছর বয়সের মধ্যে।
তাজ জ্যাকসন বিশ্বাস করেন যে ওয়েড তার চাচার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন কারণ তিনি ও জেমস লক্ষ লক্ষ ডলার দাবি করে জ্যাকসন এস্টেটের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন। ওই মামলা এখন আপিল পর্যায়ে রয়েছে।
সোমবারে ওপরাহ উইনফ্রে’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়েড বলেন, ২০১৩ সালে তিনি যে মামলা করেছিলেন, তা শুধু টাকার জন্য করেননি। বরং নিজের কথা প্রকাশ করার জন্য একটি শক্তিশালী প্ল্যাটফর্ম খুঁজছিলেন তিনি।
‘চ্যানেল ফোর’ টেলিভিশনে বুধবার তথ্যচিত্রটি প্রচার শুরু হয়েছে। তাজ বলছেন যে তিনি এটির দ্বিতীয় অংশটি দেখেছেন এবং যারা ওয়েড ও জেমসকে চেনেন না তারা তাদের ভাষ্যকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করতে পারেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যৌন হয়রানি


আরও
আরও পড়ুন