Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

মৃত্যুর গুজব উড়িয়ে মাসুদ আজহারের অডিও প্রকাশ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মার্চ, ২০১৯, ৫:৪৩ পিএম

জইশ-ই-মোহাম্মদপ্রধান বিষয়ে যখন দুদেশের মধ্যে জল্পনা চলছে এরই মধ্যে একটি অডিও ক্লিপ প্রকাশ হয়েছে যেখানে মাসুদ আজহারের কণ্ঠে শোনা গেছে, ‘আমার মৃত্যু নিয়ে পুরো বিশ্বে চর্চা হলেও আমি বেঁচে আছি৷ ভালো আছি।’ খবর টাইমস অব ইন্ডিয়া।
প্রতিবেদনে জানানো হয়, ১১মিনিটের অডিও ক্লিপটিতে মাসুদ বলছেন, ‘আল্লাকে ভয় করো। মসজিদ-মাদ্রাসা ভাঙা থেকে বিরত থাকো৷ মনে রাখবে, যখন মুসলমানরা কাফেরদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে নামে তাদের সঙ্গে আল্লাহর আর্শীবাদ থাকে৷ আল্লাহকে ধন্যবাদ। আমার মৃত্যু নিয়ে পুরো বিশ্বে চর্চা হলেও আমি বেঁচে আছি৷ ভালো আছি।’
ধারণা করা হচ্ছিল বালাকোটে ভারতীয় বিমানবাহিনীর এয়ার স্ট্রাইকে আজাদ কাশ্মীরে জইশ-ই-মোহাম্মদ প্রধান মাওলানা মাসুদ আজহার নিহত হয়েছেন। তবে তিনি মারা যাননি বলে দাবি করে পাকিস্তান সংবাদমাধ্যম। পাকিস্তানের জিও টিভি উর্দুর খবরে বলা হয়, মাসুদ আজহারের মৃত্যুর খবর মিথ্যা। পরিবারের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্রে জানা গেছে, এখনও বেঁচে আছেন আজহার। এরপর ভারতের এক জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেন, সম্প্রতি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মাসুদ আজহার কিডনি বিকল হওয়ার রোগে ভুগছেন। তাকে নিয়মিত হাসপাতালে ডায়ালাইসিস করতে হচ্ছে।
এদিকে, গত ৫ মার্চ মাসুদ আজহারের ভাই আবদুল রউফ ও ছেলে হাম্মাদ আজহারসহ নিষিদ্ধ সশস্ত্র সংগঠনের ৪৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী। মঙ্গলবার ইসলামাবাদে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র সচিব আজম সুলেমান খান স্থানীয় সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের ভয়াবহ আত্মঘাতী হামলায় ভারতের কেন্দ্রীয় আধাসামরিক বাহিনীর (সিআরপিএফ) ৪৪ সদস্য নিহত হন। ওই হামলার পরপরই একটি ভিডিওবার্তায় দায় স্বীকার করে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ। এমন হামলায় পাকিস্তানের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করে মোদি সরকার। জবাবে প্রমাণ চেয়ে এমন অভিযোগ উড়িয়ে দেয় ইমরান খানের সরকার। এর পর থেকেই ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে চরম উত্তেজনা শুরু হয়।
পুলওয়ামায় হামলার প্রতিশোধ নিতে বালাকোটে ভারতীয় বিমানবাহিনী হাজার কেজির বোমা ফেলে। এতো বালাকোট প্রকম্পিত ও বিপুল পাইন গাছ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ এয়ার স্ট্রাইকে জইশ নেতা মাসুদ আজহারসহ ৩০০ বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহতের দাবি করে ভারতীয় বিমানবাহিনী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগানিস্তান

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ