Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

আগামী ৫ বছরে প্রবৃদ্ধি হবে ১০ শতাংশ : অর্থমন্ত্রী

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধির বিষয়ে আশা প্রকাশ করে বলেছেন, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে জিডিপির প্রবৃদ্ধি দুই অঙ্কের হবে এবং তখন জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ১০ শতাংশ। অর্থমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার হাত ধরেই সউদী আরবের সঙ্গে আমাদের সু-সম্পর্ক। ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে প্রধানমন্ত্রী সউদী আরব সফর করেছিলেন। তার ফল আসতে শুরু করেছে। দুই দেশের মধ্যে সব সম্পর্ক আরও গভীর হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে সউদী আরবের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। দুই দিনব্যাপি সউদী প্রতিনিধিদলের ৩৪ সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন সে দেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ মন্ত্রী ড. মজিদ বিন আবদুল্লাহ আল ক্যাসাবি।
দেশের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বে বিশ্বব্যাপী চলমান অর্থনৈতিক মন্দা সত্তে¡ও বাংলাদেশ গত ১০ বছরে ৭ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনে সমর্থ হয়েছে। চলতি বছরে ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে। আমরা আগামী বছর ৮ দশমিক ২৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনের প্রত্যাশা করছি। ভৌগোলিক অবস্থান এদেশকে আঞ্চলিক যোগাযোগ, বিদেশি বিনিয়োগ এবং গেøাবাল আউটসোর্সিংয়ের একটি কেন্দ্রে পরিণত করেছে।
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, ২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ হবে। আমাদের আশা ২০২০ সালের মধ্যে ৩১তম এবং ২০৪১ সালে ২০তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ হবে বাংলাদেশ। শেষ বছরে দুই লাখ ৮৭ হাজার বাংলাদেশি হজ ও ওমরাহ পালন করেছে জানিয়েছে অর্থমন্ত্রী জানান, প্রতিবছর হজ ও ওমরাহ পালনের সংখ্যা বাড়ছে।
দেশে ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কথা তুলে ধরে মুস্তফা কামাল বলেন, আমাদের রয়েছে প্রতিযোগিতামূলক বেতন-ভাতায় সহজে প্রশিক্ষণযোগ্য নিবেদিতপ্রাণ জনশক্তি। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনে স্বল্প ব্যয় এবং আমাদের বৃহৎ শুল্কমুক্ত ও কোটামুক্ত বাজারে প্রবেশ সুবিধাও আছে। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ এবং অত্যন্ত আকর্ষণীয় প্রণোদনার সুযোগ গ্রহণের মাধ্যমে অধিক হারে মুনাফার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশে। দেশের জনশক্তির বর্ণনা দিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশে ১৬৩ মিলিয়ন মানুষ। এর মধ্যে ৬৮ শতাংশই কর্মক্ষম। এই কর্মক্ষম মানুষদের আমরা দক্ষ করে গড়ে তুলতে নানা উদ্যোগ হাতে নিয়েছি। বিদ্যুৎ, সৌরশক্তি, জ্বালানি, টেলিকমিউনিকেশন এবং তথ্যপ্রযুক্তি, পেট্রোকেমিক্যাল, ওষুধশিল্প, জাহাজ নির্মাণ এবং কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণের মতো খাতে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে পারবে সউদী আরব।###

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অর্থমন্ত্রী


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ