Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

আসামে কংগ্রেস হটিয়ে বিজেপি আসছে ক্ষমতায়

তিন রাজ্যেই ফল ঘোষণা আগামীকাল : নানা জরিপের নানা মত

প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : আসামে একক রাজত্ব চলছিল কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোটের। তবে সেই রাজত্ব ভাঙতে শুরু করেছে গেরুয়া বাহিনী। বিগত জাতীয় নির্বাচনে কংগ্রেসকে নাকানি-চুবানি দেওয়ার পর রাজ্যের নির্বাচনগুলোতেও বিজেপির পতাকা পতপত করে উড়তে দেখা গেছে। এবার বিজেপি পতাকা উড়াতে যাচ্ছে আসাম রাজ্যেও! কংগ্রেসের টানা ১৪ বছরের শাসনের অবসান ঘটিয়ে গড়তে যাচ্ছে গেরুয়া-দুর্গ! এই রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি পেতে যাচ্ছে নিরঙ্কুশ বিজয়! আগামীকাল ১৯ মে আসামের বিধানসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার তিন দিন আগে গত সোমবার প্রকাশিত একাধিক বুথফেরত জরিপে (এক্সিট পোল) এ পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। ৪ এপ্রিল ও ১১ এপ্রিল দুই দফায় বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণের সময় এ বুথফেরত জরিপ চালায় ভারতের আলোচিত গবেষণা সংস্থা সিভোটার, ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস, এবিপি, নিউজ নেশন ও চাণক্য। ১২৬ আসন বিশিষ্ট আসামের বিধানসভায় সরকার গঠনের সংখ্যাগরিতায় প্রয়োজন হয় ৬৪ আসনের। সিভোটার বলছে, নির্বাচনে বড় চমক দিতে যাচ্ছে বিজেপি। এবার তারা আসন পাচ্ছে ৫৭টি। আর কংগ্রেস পাচ্ছে ৪১টি। তবে, সিভোটারের চেয়েও এগিয়ে বিজেপিকে সরকার গঠনের মতো আসন পাওয়ার পূর্বাভাস দিচ্ছে এবিপি। তারা বলছে, কংগ্রেসের বাজির ঘোড়া মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গাগৈকে ধরাশায়ী করে সর্বানন্দ সোনোয়ালের নেতৃত্বে ৮১ আসন বাজিমাত করতে যাচ্ছে বিজেপি। আর ৩৩ আসন পেয়ে বিরোধী দলের ভূমিকায় নেমে যেতে হবে কংগ্রেসকে। নিউজ নেশনও সরকার গঠনের মতো আসন পাওয়ার পূর্বাভাস দিচ্ছে বিজেপিকে। তারা বলছে, গেরুয়া বাহিনী এবার ৬৫ আসন পেয়ে ক্ষমতা নিতে যাচ্ছে। আর ৪৯ আসন পেয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হবে কংগ্রেসকে। তবে বিজেপির সবচেয়ে বেশি উচ্ছ্বসিত হওয়ার মতো খবর দিচ্ছে চাণক্য ও ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিস। চাণক্য বলছে, বিজেপি দুই তৃতীয়াংশেরও বেশি অর্থাৎ ৯০ আসন পাচ্ছে। আর কংগ্রেসের ধপাস পতন ঘটছে ২৭ আসনে। ইন্ডিয়া টুডে-অ্যাক্সিসও প্রায় সমান কথা বলছে। তাদের মতে, গেরুয়া বাহিনীর দখলে যাচ্ছে ৮৬ আসন। আর কংগ্রেসরা নেমে যাচ্ছে ২৯ আসনের বিরোধী দলীয় মর্যাদায়। তবে এই আগাম ফল নিয়ে বেশি উৎসাহ দেখাচ্ছেন না গেরুয়া বাহিনীর সর্বাধিনায়ক সর্বানন্দ। তিনি অপেক্ষা করছেন চূড়ান্ত ফলাফলের জন্যই। কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গাগৈও বিশ্বাস করতে চাইছেন না বুথফেরত জরিপের ফল। তিনি বলেন, আমি আসামের মানুষদের বিশ্বাস করি। তারা জানে কীভাবে আমাদের সময়ে উন্নয়ন হয়েছে এখানে। ইন্ডিয়া টুডে, ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ