Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ০২ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

শান্তি, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের পথ বিচ্যুৎ হব না : বাজওয়া

উত্তেজনার মাঝেই ভারতকে পাকিস্তানের কড়া বার্তা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে। চলছে পাল্টাপাল্টি হুঙ্কার। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই পাকিস্তান সেনাবাহিনীর চীফ অফ আর্মি স্টাফ এবং সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া বলেছেন, উত্তেজনার পালে হাওয়া দিচ্ছে ভারত, যার কারণে পরবর্তীতে এই ইস্যুতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মনোযোগ আকর্ষিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কমান্ডারদের সাথে অনুষ্ঠিত এক সম্মেলনে দেশটির সেনাপ্রধান বলেন, ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর অব্যাহত বর্বরতা ও নৃশংসতার কারণে সেখানে এই উত্তেজনা ও অস্থিরতা সৃষ্টি হয়েছে। আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা রক্ষার স্বার্থেই ভারতকে বর্বরতা ও নৃশংসতা বন্ধ করতে হবে। পাকিস্তান আইএসপিআর’র বিবৃতি অনুযায়ী সেনাপ্রধান বাজওয়া আরো বলেন, ‘সেনাবাহিনীসহ অন্যান্য নিরাপত্তাবাহিনী কিভাবে ও কোন নীতিতে ব্যবহার করা হবে তা কেবল রাষ্ট্রের অধিকার।’ জেনারেল বাজওয়া বলেন,‘পাকিস্তান সমস্ত প্রতিকূলতাকে পিছনে ফেলে শান্তি, স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের পথে হাঁটছে। কেউ কোনো হুমকিতেই আমাদেরকে এই পথ থেকে বিচ্যুত করতে পারবে না।’ ন্যাশনাল অ্যাকশান প্লান (এনএপি) বা জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়ন করতেও সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী ভারতের সাথে সাম্প্রতিক উত্তেজনার সময় সামরিক বাহিনীর সদস্যদের পারফরম্যান্স ও মনোবলের প্রশংসা করেন পাকিস্তান সেনাপ্রধান। পাশাপাশি প্রয়োজনের সময় সমগ্র জাতির নিকট থেকে সমর্থন পাওয়ায় মহান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি। সীমান্তে যে কোন হুমকি মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত থাকতেও সেনাসদস্যদের প্রতি নির্দেশ দেন তিনি। দ্য নিউজ।



 

Show all comments
  • Ahmad Anam ১০ মার্চ, ২০১৯, ২:৪১ এএম says : 0
    বেত দেখিয়ে শাসাচ্ছেন!
    Total Reply(0) Reply
  • Md.Mithu ১০ মার্চ, ২০১৯, ২:৪২ এএম says : 0
    We hate terrorism.Pakistan should take control over terrorist units in no time.BUT,we should not forget the terrorist activities of ''MODI and his company'' that they did in Gujrat conflict.They must be punished.India is also a racial terrorist country undoubtedly.
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১০ মার্চ, ২০১৯, ২:৪২ এএম says : 0
    জঙ্গী আরএসএস, শিবসেনা, বজরঙ্গী দলের ট্রেনিং সেন্টারগুলো বন্ধ করা উচিত, গুজরাট দাঙ্গার হোতা জঙ্গী রাজনৈতিকদের বিচারের আওতায় আনা উচিত।
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ১০ মার্চ, ২০১৯, ২:৪৪ এএম says : 0
    ঠিক। সেরা মুসলিম সেনাপ্রধানকে ধন্যবাদ।
    Total Reply(0) Reply
  • Ahmed Sayeed ১০ মার্চ, ২০১৯, ৯:১৩ এএম says : 0
    Both Pakistan & India have responsibilities for contribution for regional as well as world peace. Since India is a powerful country she has got more responsibility. If she really desires peace she should immediately response & start negotiation with Pakistan. May Allah help them to be on good sense!
    Total Reply(0) Reply
  • Ahmad Sayeed ১০ মার্চ, ২০১৯, ৮:৫৮ এএম says : 0
    Both the countries India and Pakistan have responsibility
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ