Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

মেসি-রোনালদো-নেইমারদের সঙ্গে সাকিব-মুশফিক-মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

২০১৯ সালে বিশ্বের সেরা ১০০ জনপ্রিয় ক্রীড়া ব্যক্তিত্বের তালিকা প্রকাশ করেছে ক্রীড়া বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন। যেখানে স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার। বাংলাদেশ থেকে প্রথমবারের মতো এই তালিকায় জায়গা পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট দলপতি সাকিব আল হাসান, ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।
৭৮টি দেশের প্রায় ৮০০ সেরা খেলোয়াড়ের মধ্য থেকে ১০০ অ্যাথলেটের নাম ঘোষণা করা হয়। যেখানে বিবেচ্য বিষয় ছিল সোস্যাল মিডিয়ার ফলোয়ার, অনলাইন সার্চ, বিভিন্ন বিজ্ঞাপন থেকে আয় ইত্যাদি। এই তালিকায় ক্রিকেটার রয়েছেন মাত্র ১১ জন। যাদের মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি ছাড়া বাকি আটজনই ভারতীয়। সাকিব ৯০তম, মুশফিক ৯২তম এবং মাশরাফি ৯৮তম স্থানে অবস্থান করছেন। ফুটবলার আছেন ৩৭ জন, বাস্কেটবল খেলোয়াড় আছেন ১৬ জন। আছেন টেনিসের তারকারা, আছেন ফর্মুলা ওয়ান তারকা লুইস হ্যামিলটন, অলিম্পিকে সাঁতারে গোল্ড মেডেল পাওয়া সান ইয়াং।
শীর্ষে আছেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ তারকা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের বাস্কেটবল খেলোয়াড় লেবরন জেমস। আর তৃতীয় স্থানে আছেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন মহাতারকা লিওনেল মেসি। চারে স্থান পেয়েছেন পিএসজির ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। টেনিসের দুই মহাতারকা রজার ফেদেরার ও রাফায়েল নাদালের অবস্থান যথাক্রমে ষষ্ঠ ও অষ্টম। সেরেনা উইলিয়ামস ১৭, মারিয়া শারাপোভা ৩৭, সানিয়া মির্জা ঠিক মুশফিকের পেছনে ৯৩ নম্বরে অবস্থান করছেন।
১১ ক্রিকেটারের মধ্যে সবার উপরে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তার অবস্থান সপ্তম। বাকি ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে মহেন্দ্র সিং ধোনি ১৩তম, যুবরাজ সিং ১৮তম, সুরেশ রায়না ২২তম, রবীচন্দ্রন অশ্বিন ৪২তম, রোহিত শর্মা ৪৬তম, হরভজন সিং ৭৪তম, শিখর ধাওয়ান ৯৪তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন। গতবারের তালিকা থেকে এবার বাদ পড়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক দলপতি এবি ডি ভিলিয়ার্স এবং ভারতের সাবেক তারকা ওপেনার গৌতম গম্ভীর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাশরাফি


আরও
আরও পড়ুন