Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬, ১৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

রিউমাটয়েড আর্থাইটিস

| প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:০০ পিএম


আয়েশা খাতুন একজন গৃহিনী , বয়স ৬৮ বছর। কিছুদিন যাবৎ লক্ষ করছেন তার সমস্ত শরীরে ব্যথা বিশেষ করে হাত ও পায়ের ছোট ছোট জয়েন্টগুলিতে বেশী ব্যাথা করে ও ফুলে , সকালে ঘুম থেকে উঠার সময় এত বেশী ব্যাথা হয় যে বিছানা থেকে উঠতে পারে না কিন্তু কিছুক্ষন হাটাচলা কিংবা কাজকর্ম করলে ব্যাথা কমে আসে, পাশাপাশি শরীরে হালকা জ্বর থাকে, আয়েশা খাতুন সমস্যাটিকে অবহেলা না করে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলেন, ডাক্তার সাহেব উনার রোগের বর্ণনা শুনে ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বললেন আপনার রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস হয়েছে।
তাহলে আসুন, আমরা জেনে নিই রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস কি ? ও তার চিকিৎসা সর্ম্পকে। এটি খুব পরিচিত একটি বাত রোগ। এটা একটি অটোইম্যুন ডিজিজ যার নির্দিষ্ঠ কোন কারণ এখন পর্র্যন্ত জানা যায়নি। এটা পুরুষ ও মহিলা উভয়েরই হাত পারে । তবে পুরুষের তুলনায় মেয়েদের বেশী হয়। এটা সাধারনত ২৫- ৪৫ বছর বয়সের মধ্যে বেশী দেখা যায়। এটি সাধারণত সম্পুর্ণ নিরাময় হয় না ।
লক্ষণ ঃ
১. প্রথমে হাত ও পায়ের ছোট ছোট জয়েন্টগুলিতে ব্যাথা করে , পরবর্তীতে শরীরের প্রত্যেকটি জয়েন্টে সমস্যা দেখা দেয় ।
২. জয়েন্ট গুলি ফুলে যায় ।
৩. সকালে ঘুম থেকে উঠার সময় ব্যাথা বেশী হয় পরবর্তীতে হাটাচলা ও কাজকর্মে ব্যাথা কমে আসে,
৪. ব্যাথার পাশাপাশি শরীরে জ্বর জ্বর অনুভূত হয়;
৫. রিউম্যাটিক নডিউল দেখা যায়।
রোগ নির্ণয় ঃ
ক্লিনিক্যাল এক্সামিনেশন বা পর্যবেক্ষনের পাশাপাশি রোগ নির্ণয়ে কিছু প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা করার প্রয়োজন পড়ে, যেমন- সিবিসি উইথ আর, সি আর পি, আর এ টেষ্ট, সেরাম ইউরিক এসিড, এ এন এ এন্টিবডি, এন্টি সিসিপি ইত্যাদি এবং আক্রান্ত জয়েন্টগুলি এক্স-রে করার ও প্রয়োজন পড়ে।
চিকিৎসা ও করণীয় ঃ
এটি যেহেুতু সম্পূর্ণ নিরাময় যোগ্য রোগ নয় তাই এর জন্য চিকিৎসাকের নির্দেশনায় কিছু ঔষধ রোগীকে নিয়মিত খেতে হবে পাশাপাশি এই রোগের জটিলতা যেমন জয়েন্টগুলি শক্তে হয়ে যায় ও বাঁকা হয়ে যায় ইত্যাদি প্রতিরোধ করার জন্য নিয়মিত ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা নিতে হবে ও চিকিৎসকের নির্দেশিত ব্যায়াম করতে হবে।

ডা: এম ইয়াছিন আলী
বাত, ব্যাথা, পারালাইসিস ও ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ
চেয়ারম্যান ও চীফ কনসালটেন্ট
ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল, ধানমন্ডি, ঢাকা ।
মোবা : ০১৭১৭ ০৮ ৪২ ০২



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন