Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

নাস্তিকদের চেয়ে বেশি সুখী হন বিশ্বাসীরা

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

কী উপায়ে মানুষ প্রকৃতভাবে সুখী হয় সেটি নিশ্চিত ভাবে বলা অসম্ভব। তবে সুখী হওয়ার জন্য সবচেয়ে কার্যকরি উপায় হতে পারে ধর্ম বিশ্বাস দৃঢ়ভাবে রাখা।
সম্প্রতি পরিচালিত এক জরিপ অনুসারে, যারা কোন ধর্মীয় সম্প্রদায়ভুক্ত থাকে এবং সৃষ্টিকর্তার প্রতি আস্থা রাখে ও ধর্মীয় আচার-আচরণ পালন করে তারা অন্যদের তুলনায় সুখী হয় এবং সন্তুষ্ট থাকে। অতএব, আপনি যদি আপনার জীবনে সুখী থাকতে চান তবে ধর্ম পালনে মনোযোগি হন এবং সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করুন। বিশ্বখ্যাত পিউ রিসার্চ ২৪ টিরও বেশি দেশে একটি গবেষণা চালিয়েছিল তিন ধরণের মানুষের জীবনযাত্রা নিয়ে। যারা কোন ধর্মীয় সম্প্রদায় বা বিশ্বাস অনুসরণ করে অর্থাৎ, পরিপূর্ণ বিশ্বাসী, যারা কোন ধর্মেই বিশ্বাস করেনা অর্থাৎ, নাস্তিক এবং যারা পুরোপুরি বিশ্বাস কিংবা অবিশ্বাস কোনটাই করে না অর্থাৎ, মাঝামাঝি।
গবেষণায় দেখা গেছে যে, প্রকৃত স্বাস্থ্য পরিসংখ্যানে (স্থুলতা, ব্লাড প্রেশার এবং হৃদরোগের ঝুঁকি) তেমন কোন পার্থক্য না থাকলেও, বিশ্বাসীরা জীবনে সুখী এবং ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি সম্পন্ন হয়। যা, উন্নত এবং সুন্দর মানসিক স্বাস্থ্য ধরে রাখতে কাজ করে। আনন্দের বিষয়, ৭৫% ধর্ম বিশ্বাসী ব্যাক্তি নিজেদেরকে সুখী এবং সন্তুষ্ট বলে অভিহিত করে। যদিও বিজ্ঞান মানুষের সুখের জন্য ধর্ম বিশ্বাস প্রভাব রাখে, এমনটি সুনিশ্চিতভাবে প্রমাণ করতে পারেনি, তবে এই ফলাফল অন্তত এর সপক্ষে যুক্তি দেখাতে পারে। সূত্র: টিওআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নাস্তিক


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ