Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

প.বঙ্গে ডাইনি অপবাদে আরো একজনকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : পশ্চিমবঙ্গের দাসপুরের গ্রামে ডাইনি অপবাদে তিন মহিলাকে পিটিয়ে খুনের ঘটনা ঘটায় আদালত সাতজনকে ফাঁসির রায় শুনিয়ে ছিলো। বিচারক জোর গলায় বলেছিলেন, জেলায় ডাইনি অপবাদে খুনের ঘটনায় এত জনের সর্বোচ্চ সাজা এই প্রথম। দৃষ্টান্তমূলক এই শাস্তি ঘোষণার রাতেই ফের এক মহিলাকে ডাইনি আপবাদে হত্যা করা হলো পশ্চিম মেদিনীপুরেই। এবার ঘটনাস্থল ডেবরা। ডেবরার ভরতপুর পঞ্চায়েতের বীরসিংহপুরে নিহতের নাম সোমবারি টুডু (৪৬)। স্থানীয় সূত্রের খবর, ওই গ্রামে গত কয়েক মাসে রোগে ভুগে কয়েক জনের মৃত্যু হয়। গত সোমবার বিকেলে গ্রামের কিশোরী বীণা মুমূর্ষু অসুস্থ হয়ে পড়ে। বীণার পরিবারের ধারণা হয়, সোমবারি আদর করেছেন বলেই সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। সে খবর চাউর হতেই সালিশি সভার নিদান দেন গ্রামের মাতব্বরেরা। সন্ধ্যার সেই সালিশিতে ডাকা হয় সোমবারিকে। গ্রামের মেয়ে-বউরা দাবি করে, সোমবারি ডাইনি। তার ছোঁয়া লেগেছে বলেই বীণা অসুস্থ হয়ে পড়েছে। প্রতিবাদের চেষ্টা করেও পারেননি সোমবারি। তার দিকে তেড়ে যায় গ্রামবাসীদের একাংশ। সালিশি সভা ভেস্তে যায়। তবে ‘ডাইনি’ সোমবারিকে ‘শাস্তি দেওয়ার প্রক্রিয়া থেমে থাকেনি। তাকে গাছে বেঁধে শুরু হয় মারধর। হামলাকারী সেই দলের পুরোভাগে ছিলেন রেন্টা টুডু, চন্ডী হেমব্রম, মালতী মাল্টি, রণজিৎ মাটিরা। রেন্টা হলেন বীণার মামা। স্ত্রীকে বাঁচাতে আসেন সোমবারির স্বামী শেরু টুডু। মারধর করা হয় তাকেও। ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ