Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনে সহায়ক নতুন মুদ্রানীতি

বিআইবিএমে মুদ্রানীতি বিষয়ক কর্মশালায় বক্তারা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম


বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুদ্রানীতির (জানুয়ারি-জুন-২০১৯) মুদ্রানীতির কারণে উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব হবে। একই সঙ্গে সরকারের সামষ্টিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে যথাযথ ভ‚মিকা বলেও অভিমত ব্যক্ত করেছেন ব্যাংকার এবং অর্থনীতিবিদরা।
গতকাল রাজধানীর মিরপুরে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্টের (বিআইবিএম) মিলনায়তনে মুদ্রানীতি (জানুয়ারি-জুন,২০১৯) শীর্ষক এক কর্মশালায় বক্তারা এ কথা বলেন। কর্মশালায় ঘোষিত মুদ্রানীতি বিষয়ে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. আখতারুজ্জামান। বিআইবিএমের পরিচালক (প্রশিক্ষণ) অধ্যাপক ড. শাহ মো. আহসান হাবীব-এর সভাপতিত্বে এ কর্মশালায় সরকারি এবং বেসরকারি ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। কর্মশালায় সূচনা বক্তব্য রাখেন বিআইবিএমের পরিচালক (ডিএসবিএম) মো. মহিউদ্দিন ছিদ্দিকী।
ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, উচ্চ প্রবৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হয়েছে। বেসরকারি খাত বিনিয়োগের জন্য পর্যাপ্ত অর্থ পাবে। তবে উচ্চ প্রবৃদ্ধি এবং বিনিয়োগের জন্য মুদ্রানীতির বাইরে আরও কিছু বিষয় রয়েছে, সে সব ক্ষেত্রে সফলতা আসলে উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হবে।
তিনি বলেন, সরকার বাজেটে ঘোষণা দিয়েও প্রয়োজন না হওয়ায় লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী ব্যাংক ঋণ নিচ্ছে না। সরকার সঞ্চয়পত্র থেকে বেশি অর্থ নিচ্ছে। এতো অর্থ নেওয়ার বিষয়ে ইতিবাচক- নেতিবাচক দিক পর্যালোচনা করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
পূবালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং বিআইবিএম-এর সুপারনিউমারারি প্রফেসর হেলাল আহমদ চৌধুরী বলেন, উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনে আর্থিক কার্যক্রমে নারীদের অংশগ্রহণ আরও বাড়াতে হবে। একই সঙ্গে নারীদের গৃহস্থালীর কাজকে জিডিপিতে অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।
সভাপতির বক্তব্যে ড. শাহ মো. আহসান হাবীব বলেন, উচ্চ প্রবৃদ্ধি অর্জনে আর্থিক অর্ন্তভ‚ক্তি খুব জরুরি। এ আর্থিক অর্ন্তভূক্তি আরও পরিকল্পনা মাফিক হতে হবে। আর্থিক অর্ন্তভূক্তি বিষয়ে বিশদ গবেষণা করে পদক্ষেপ নিতে হবে। নতুন- পুরাতন সব ব্যাংক শহরের একই জায়গায় শাখা খুলছে। এতে গ্রামের মানুষ ব্যাংকিং সেবার বাইরে। এ অবস্থার পরিবর্তন না হলে আর্থিক অর্ন্তভূক্তি সম্ভব হবে না।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক এবং বিআইবিএমের সুপারনিউমারারি প্রফেসর মো. ইয়াছিন আলি। সমাপনি বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক এবং বিআইবিএমের অনুষদ সদস্য মো. আব্দুল কাইউম।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন