Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

বেঁচে গেছি, সবাই দোয়া করবেন -তামিম

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ১০:৫২ এএম | আপডেট : ১১:০০ এএম, ১৫ মার্চ, ২০১৯

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে বন্দুকধারী সন্ত্রাসীর গোলাগুলির ঘটনায় অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা। ওই মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন তারা। ঘটনার পর টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল এক টুইটে নিজেদের নিরাপদে থাকার কথা জানিয়েছেন।
তামিম টুইটে লিখেছেন, বন্দুকধারীর গুলি থেকে আমরা পুরো দল বেঁচে গেছি। এটা খুবই ভীতিজনক একটি অভিজ্ঞতা। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।
জানা যায়, শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে সেন্ট্রাল ক্রাইস্টচার্চের মসজিদ আল নূরে এক বন্দুকধারী হামলা করে। মসজিদে তখন জুমার নামাজ চলছিল। সিরিজের তৃতীয় টেস্ট খেলার জন্য ক্রাইস্টচার্চে ছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট টিম। হ্যাগলি ওভাল মাঠে তারা অনুশীলন করছিলেন। মাঠের পাশেই ওই মসজিদেই জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন তামিম ইকবালসহ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা।

ঘটনাস্থলে ছিলেন ইএসপিএন ক্রিকইনফো’র বাংলাদেশ করেসপন্ডেন্ট মোহাম্মদ ইসাম। তিনি টুইটে লিখেছেন, হ্যাগলি পার্কের খুব কাছেই একটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলা থেকে বেঁচে গিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা। তারা হ্যাগলি পার্কের পেছন দিয়ে ওভাল মাঠে ফিরেছেন।

টুইটের সঙ্গে একটি ভিডিও-ও শেয়ার করেছেন ইসাম। তাতে দেখা যায়, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা ওই পার্কের ভেতর দিয়ে নিরাপদে ফিরছেন। এসময় আশপাশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়ির শব্দ পাওয়া যাচ্ছিল। এটি যে একটি ভয়ংকর অভিজ্ঞতা, সেটিও নিজেদের মধ্যে আলোচনা করছিলেন ক্রিকেটাররা।

ভিডিওতে দেখা যায়, তামিম ইকবালের সঙ্গে তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ ও সৌম্য সরকার ত্রস্ত পায়ে ফিরছেন পার্কের ভেতরের একটি রাস্তা দিয়ে। আচমকা এ ঘটনার আতঙ্ক ছড়িয়ে রয়েছে তাদের চোখে-মুখে।
ক্রিকইনফো’র খবরে বলা হয়, পার্কের মধ্য দিয়ে হাঁটার সময় বাংলাদেশি খেলোয়াড়রা অন্য পথচারীদেরও ঘটনাস্থলের দিকে যেতে নিষেধ করেন। পরে তারা হ্যাগলি ওভাল মাঠে ফিরে আসেন। সেখানে ড্রেসিং রুমের মধ্যেই আছেন তারা। দলের লিটন দাস ও নাঈম হাসান, কোচ স্টিভ রোডস এবং দলের বাকি কোচিং স্টাফ হোটেলে অবস্থান করছিলেন। তাদের হোটেলেই থাকতে বলা হয়েছে।



 

Show all comments
  • ম নাছির উদ্দীন শাহ ১৫ মার্চ, ২০১৯, ৩:০৮ পিএম says : 0
    মসজিদ এটি আল্লাহু তায়ালার ঘর। নিরাপদ জায়গা এবাদতের পবিত্র স্হান। এই পবিত্র আল্লাহর ঘরে সেজদায় অবস্হায় শহীদ হলো আমাদের সন্তারা। এই ভয়াবহ কাপুরুষীত রক্তাক্ত হত্যা কান্ডের দায়ী এজিদ দের বিচার কে করবে? যদি আমাদের ক্রিকেট দলের কিছু ক্ষতি হতো দেশের কোটি কোটি মানুষের সান্তনা দেওয়া যেত? জাতীয় ভাবে ক্রিকেট খেলোয়াড় দের নিরাপক্তার বিষয়ে বৈঠক হওয়া জরুরী।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তামিম

২১ মার্চ, ২০১৯
৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
৩০ জানুয়ারি, ২০১৯
১২ ডিসেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন