Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫, ১৭ রজব ১৪৪০ হিজরী।

‘জিরো’র ব্যর্থতায় বিপর্যস্থ ছিলেন শাহরুখ খান!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ৫:৫৪ পিএম

আকাশ ছুঁতে গিয়ে এক্কেবারে মুখ থুবড়ে পড়েছেন বলিউড বাদশা। ‘জিরো’র পরে শাহরুখ খান মহাকাশ নিয়ে আর কোনো চলচ্চিত্র নির্মাণ করবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন। এমন একটি বিস্ফরক তথ্য দিলেন কাহিনীকার আঞ্জুম রাজবালি। তিনি বলেছেন, শাহরুখ খান মহাকাশচারী রাকেশ শর্মার জীবনী ‘সারে জাঁহা সে আচ্ছা' করবেন না একথা প্রথমেই বলে দিয়েছিলেন। ‘জিরো’র ব্যর্থতা তখনো তিনি ভুলতে পারেননি।
এফআইসিসিআই ফ্রেমের একটি আলোচনায় আঞ্জুম বলেন, ‘জিরো’র স্ক্রিপ্ট নিয়ে একটি সমস্যা ছিল। হিমাংশু (লেখক হিমাংশু শর্মা) একজন প্রতিভাবান ব্যক্তি। কিন্তু একটি শব্দ আছে সেটা মানতে আমাদের অনেক কষ্ট হয়। সেটা হলো মানুষ মাত্রই ভুল। মহাকাশের কারণে ‘সারে জাঁহা সে আচ্ছা’কে না বলেছিলেন শাহরুখ তা নয়। আসলে ‘জিরো’র ব্যর্থতায় খুবই বিপর্যস্থ ছিলেন তিনি।’
আঞ্জুম জানান, একটি চলচ্চিত্র ব্যর্থ হলে সকলে অনেক কিছুকে দোষারোপ করেন। কিন্তু কেউ স্ক্রিপ্টের দোষ খোঁজেন না। তিনি বলেন, ‘পোস্টমোর্টেমের এই পুরো অভ্যাস ও সংস্কৃতি একেবারেই ভুল পথে হয়। যেহেতু মহাকাশ আছে তাই ব্যর্থতা আসবেই এভাবে দুইয়ে দুইয়ে চার করার অভ্যাস আমাদের। চলচ্চিত্রের সময়টাই ঠিক ছিল না, কেউ অক্ষম ব্যক্তির ভূমিকাতে কোনো তারকা দেখতে চায় না। স্ক্রিপ্টের ডিএনএতে সমস্যা ছিল আসলে।’
গোলাম, দ্য লেজেন্ড অব ভগত সিং ও রাজনীতির মতো চলচ্চিত্রগুলির লেখক আঞ্জুম মনে করেন, একজন লেখকের উচিৎ সৎ আত্মবিশ্লেষণ করা। তাহলেই একমাত্র বিষয়গুলি কোথায় কী ভুল হয়েছে তা নির্ধারণ করতে সক্ষম হবেন।
লেখক অয়াঞ্জুমের কথায়, ‘যখন কোনো চলচ্চিত্র ভালো পরিচালক প্রতিভাবান তারকা থাকার পরেও সফল হয় না, তার মানে স্ক্রিপ্টে ভুল হয়ে গেছে। এভাবেই আমাদের বিশ্লেষণ করা দরকার।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শাহরুখ খান


আরও
আরও পড়ুন