Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

মির্জাপুরে প্রতিক বরাদ্দ পেয়ে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০১৯, ৮:০৮ পিএম | আপডেট : ৮:৫০ পিএম, ১৫ মার্চ, ২০১৯

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা প্রতিক বরাদ্দ পাওয়ার পর ভোটের মাঠে প্রচারনা শুরু করে দিয়েছেন। শুক্রবার থেকে তারা পুরোদমে মাঠে চষে বেড়াচ্ছেন। অনেক প্রার্থী দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী কৌশল নির্ধারণে বৈঠক করছেন বলে জানা গেছে।
আগামী ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপে মির্জাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে চারজন ভাইস চেয়ারম্যান তিনজন ও সংরক্ষিত নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
বৃহস্পতিবার মির্জাপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. শামসুজ্জামান এসব প্রার্থীর মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ দেন।
চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের মির্জাপুর উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ মনোনীত মীর এনায়েত হোসেন মন্টু (নৌকা) টাঙ্গাইল জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি বিএনপি নেতা ফিরোজ হায়দার খান (মোটরসাইকেল) রুপা রায় চৌধুরী (আনারস) ও মো.লাল মিয়া (আম) প্রতিক বরাদ্দ পেয়েছেন।
ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম (টিউবওয়েল) উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক মো. সেলিম সিকদার (উড়োজাহাজ) উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. আজাহারুল ইসলাম (তালা) এবং সংরক্ষিত নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আক্তার শিফা (কলস) সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান সালমা সালাম উর্মি (হাঁস) ও উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি খালেদা সিদ্দিকী স্বপ্না (ফুটবল) প্রতিক বরাদ্দ পেয়েছেন।
প্রতিক পাওয়ার পর এসকল প্রার্থীর প্রত্যেকেই ভোটের মাঠে নেমে প্রচার প্রচারনা শুরু করে দিয়েছেন। এদের মধ্যে উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাশেম নেতাকর্মীদের নিয়ে মির্জাপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে নির্বাচনী কৌশল নির্ধারণে বৈঠক করেন এবং পরে পৌর সদরে একটি মিছিল বের করেন।
মির্জাপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. শামসুজ্জামান জানান অবাদ ও সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন সম্পন্ন করতে সকল ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা পরিষদ নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ