Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৫ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা ছিলো গঠনমূলক ও বিস্তারিত

উত্তেজনার পর পাকিস্তান-ভারত কূটনৈতিক যোগাযোগ পুনরুজ্জীবিত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

গত মাসে জম্মউ ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী বোমা হামলার জের ধরে সৃষ্ট উত্তেজনার পর বৃহস্পতিবার পাকিস্তান ও ভারতের কর্মকর্তারা প্রথমবারের মতো কূটনৈতিক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা করেছেন। পাকিস্তানের শিখ সমাধিতে ভারতীয় শিখদের সহজে যাতায়াতের সুযোগ করে দিতে একটি করিডোর ও নতুন সীমান্ত পারাপার ব্যবস্থার উপর মনোযোগ দেয়া হয় বৃহস্পতিবারের বৈঠকে। সীমান্ত চৌকি আত্তারিতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে ভারতীয় পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র রাভিশ কুমার জানিয়েছেন। বৈঠকের পর এক যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত আলোচনা ছিলো গঠনমূলক ও বিস্তারিত। পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় পাঞ্জাব প্রদেশে অব¯িত কার্তারপুর সাহিব সমাধী হলো শিখ ধর্মের অন্যতম একটি পবিত্রস্থান। শিখ ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা গুরু নানক তার জীবনের ১৮টি বছর এখানে কাটিয়েছেন এবং এখানেই তার জীবনাবসান হয়। পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে উত্তেজনার কারণে সীমান্তের ওপারে গিয়ে পবিত্র স্থানগুলো দর্শনের ক্ষেত্রে দুই দেশে বসবাসরত শিখদের প্রায়ই সমস্যায় পড়তে হয়। পুলওয়ামা হামলার ঘটনায় পারমাণবিক শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশ যুদ্ধের প্রায় দ্বারপ্রান্তে পৌছে গিয়েছিলো। পরে আন্তর্জাতিক হস্তক্ষেপে পরি¯িতি শান্ত হয়। আত্তারিতে প্রবেশের আগে পাকিস্তান পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র মোহাম্মদ ফয়সাল সাংবাদিকদের বলেন, সীমান্ত পারপারের পথ খুলে দেয়ার এই উদ্যোগ শত্রুতাকে বন্ধুত্বে পরিণত করবে। বিস্তারিত বিষয় চূড়ান্ত করার জন্য ১৯ মার্চ করিডোরের দুইপ্রান্ত পরিদর্শন ও বৈঠকে বসবে কারিগরি কমিটি। এরপর পূর্ণাঙ্গ প্রতিনিধি দলের বৈঠক হবে ২ এপ্রিল। যত শিগগির সম্ভব কারতারপুর সাহিব করিডোর চালু করার ব্যাপারে উভয়পক্ষ সম্মত হয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়। এসএএম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন