Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৫ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জোরালো প্রমাণ চায় চীন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গ্রুপ জশ-ই-মোহাম্মদের নেতা মাসুদ আজহারকে বৈশ্বিক সন্ত্রাসী হিসেবে ঘোষণা করার ভারতের সর্বশেষ প্রয়াসও ভন্ডুল করে দিয়েছে চীন। তারা বিষয়টি পরীক্ষা করতে আরো সময় চেয়েছে। চীন কেন এই অবস্থান গ্রহণ করল? এটি কি চীন-পাকিস্তান-ভারত সম্পর্কে কোনো প্রভাব ফেলবে? এ ব্যাপারে তিনজন বিশেষজ্ঞ গ্লেঅবাল টাইমসকে তাদের মতামত জানিয়েছেন। সাংহাই ইনস্টিটিউট ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের সিনিয়র ফেলো ও চায়না (কুনমিং) সাউথ এশিয়া অ্যান্ড সাউথইস্ট এশিয়া ইনস্টিটিউটের ডিস্টিংগুইশড ফেলো লিউ জনগি। তিনি বলেন, আজহারের বিষয়টি চীন ও ভারতের মধ্যকার দীর্ঘ দিনের ইস্যু। নয়া দিল্লি যদি আজহার ও জৈশকে কালো তালিকাভুক্ত করতে সক্ষম হয় তবে তারা প্রমাণ করতে পারবে যে পাকিস্তান হলো সন্ত্রাসের মদতদাতা দেশ। ফলে পাকিস্তান আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিঃসঙ্গ হয়ে পড়বে। ভারত এই লক্ষ্যেই ইস্যুটির ওপর জোর দিচ্ছে। চীনের কারিগরি কৌশল হলো সন্ত্রাসবাদের ভারতীয় সংজ্ঞা। এই সংজ্ঞা অনুযায়ী গ্রুপটি সন্ত্রাসবাদী কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। দলটি কখনো বেসামরিক নাগরিকদের ওপর হামলা চালায় না, তারা হামলা করে ভারতীয় সামরিক বাহিনী ও পুলিশের ওপর। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভারতীয় দাবি মেনে আজহার ও তার দলকে নিষিদ্ধ করেছে। কিন্তু‘ চীন তাতে রাজি নয়। এদিকে ভারতে সাধারণ নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে, জাতীয় নিরাপত্তা ও সন্ত্রাসবাদ ইস্যুগুলো ততই উত্তপ্ত হয়ে ওঠছে। জাতিসঙ্ঘ প্রস্তাব আটকিয়ে দেয়ার ফলে ভারতে চীনবিরোধী প্রচারণা হলেও তাতে চীনের করার কিছুই নেই। তিনি বলেন, নয়া দিল্লি সবসময়ই ছোট ছোট ইস্যুকে চীন-ভারত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের বিশাল প্রেক্ষাপটে স্থান দেয়। রেনমিন ইউনিভার্সিটি অব চায়নার চোঙগিয়েঙ ইনস্টিটিউট ফর ফিন্যান্সিয়াল স্টাডিজের নন-রেসিডেন্ট ফেলো লঙ জিনচুনের মতে, কাশ্মীরে সা¤প্রতিক হামলায় চীন শোকাহত। কিন্তু‘ তাই বলে তারা তাদের দীর্ঘ দিনের নীতি বদলাবে না। তিনি বলেন, ভারত যদি প্রমাণ নিয়ে উপস্থিত না হয়, তবে চীন তার অবস্থান বদলাবে না। চীন যদি এখন তার অবস্থান বদলায় তবে চীন সম্পর্কে ভুল ধারণার সৃষ্টি হবে। এসএএম।



 

Show all comments
  • হাবিবুল বাশার মাহবুব ১৬ মার্চ, ২০১৯, ১:১৪ পিএম says : 0
    একদিকে উইঘুর মুসলমান ভাইদের নির্যাতন করছে আর অন্যদিকে সহযোগিতা দেখাচ্ছে? ভাওতা বাজ বৌদ্ধ গোষ্টি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন