Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

ক্রিকেট খেলা শেষে লাশ হয়ে ফিরতে হলো আরিফকে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৯, ৩:৫৫ পিএম | আপডেট : ৩:৫৬ পিএম, ১৬ মার্চ, ২০১৯

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হলের সামনের রাস্তায় তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে ছুরিকাঘাতে আরিফ হোসেন (১৫) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। শুক্রবার (১৫ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১টার দিকে মারা যায় ওই কিশোর।

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার হেলাল মিয়ার ছেলে আরিফ। থাকতো বংশাল নাজিমউদ্দিন রোডে। একটি জুতার কারখানায় কাজ করতো সে।

নিহতের বড়ভাই আওলাদ হোসেন জানান, বিকেলে হাইকোর্ট মাঠে ক্রিকেট খেলতে যায় আরিফসহ কয়েকজন। সেখান খেলা নিয়ে আরিফের সাথে অন্যদের কথা কাটাকাটি হয়। শহীদুল্লাহ হলের সামনের রাস্তা দিয়ে ফিরছিলো তারা। বিপরীত দিক থেকে আসা ১০/১২ জন যুবকেরর মধ্যে একজন আরিফের পায়ে লাথি দেয়। পরে আরিফ প্রতিবাদ করলে প্রথমে তাকে মারধর করে তারা। পরে আরিফের বুকের ডান পাশে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়।পরে বন্ধুররা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে ।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরির্দশক বাচ্চু মিয়া জানান, ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহটি মর্গে রাখা হয়েছে। এই হত্যাকান্ডের সঙ্গে জড়িতদেরকে গ্রেফতারে জন্য পুলিশ অভিযান চালিয়েছে যাচ্ছে।



 

Show all comments
  • Sajeeb islam ১৭ মার্চ, ২০১৯, ১২:৫৭ এএম says : 0
    কি বলবো আমি,,,ভাবতেই অবাক লাগে, ১৫ বছরের শিশু নাকি জুতার কারখানায় কাজ করে।। আমাদের দেশ থেকে যদি শিশু শ্রম বন্ধ হত তাহলে এই রকম ঘটনা আমাদেরকে শুনতে হত না❎ আজ কে পত্রিকার পাতা খুললেই শুধু খুন আর খুন।। সরকার ছোট ছোট বাচ্চাদেরকে বিনা মূল্যে পড়াশোনার সুযোগ দিচ্ছে।। তবুও মাত্র কয়েকটা টাকার জন্য কেন তাদের কে এত শ্রম দিতে বলে,,,আমাদের দেশ থেকে এই ধরনের কারখানা গুলো বন্ধ করা হোক।। যেগুলোতে শিশুদের কে দিয়ে শ্রম দেয়ানো হয়।।
    Total Reply(0) Reply
  • আব্দুল্লাহ আল কোরবান ১৭ মার্চ, ২০১৯, ২:৪৩ এএম says : 0
    আমাদের সন্তান্দের কে দ্বিন এ ইসলাম শিক্ষা দিতে হবে অযথা শিশু শ্রম বিদ্বা শ্রম বলে কোন লাভ নাই
    Total Reply(0) Reply
  • Foysal ১৭ মার্চ, ২০১৯, ১২:৫০ পিএম says : 0
    Vai ato boro kotha na bole parle kisu koren seita kaje lagbe
    Total Reply(0) Reply
  • md jamal uddin ১৮ মার্চ, ২০১৯, ১:৫৩ পিএম says : 0
    ছেলেেটি ৮ম শ্রেণী পাশ করে ৯ম শ্রেণীতে পড়ে
    Total Reply(0) Reply
  • Murad ১৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৭ পিএম says : 0
    ভাই বললেন তো ঠিক। কিন্তু আসল সমস্যা তো দেশের দরিদ্রতা । আপনাদের কি মনে হয় ছোট ছোট শিশুরা কি কিছু টাকার লোভে কাজ করতে যায়।তা যায় না পরিবারের আর্থিক সমস্যার কারণেই তারা হাড় ভাঙ্গার কষ্ট করে
    Total Reply(0) Reply
  • MD.RUBEL PARVEZ ১৮ মার্চ, ২০১৯, ১:৩৩ পিএম says : 0
    ইসলাম শিক্ষা দিতে হবে সব বাচ্চাদের।আর এখানে বড় কথা বলার কি হলো ভাই।
    Total Reply(0) Reply
  • alauddin ahmed ১৮ মার্চ, ২০১৯, ২:৪৯ পিএম says : 0
    মানুষের পাপের অাধিক্যের কারনেই অাজ এত বেশী বেশী মুছিবত।অাল্লাহ সকলকে হেফাজত করুন, অামিন।
    Total Reply(0) Reply
  • মো: সুমন ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৫:১৪ পিএম says : 0
    একটা ছেলেকে এভাবে প্রকাশে খুনিরা চুরিঘাত করে প্রশাসক কি করছে ঘুনিদের ধরে ফাসি দেওয়া হোক
    Total Reply(0) Reply
  • arman ১৮ মার্চ, ২০১৯, ২:২২ পিএম says : 0
    আপনারা কেউ এ কাজটি করবেন না
    Total Reply(0) Reply
  • আব্দুল আজিজ ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৮:৪৬ পিএম says : 0
    মানুষকে মহান আল্লাহতালা সষ্টি করেছেন।সুতরাং একমাত্র তার প্রদত্ত বিধানই শান্তি দিতে পারে।তাছাড়া কোন কিছুরই দারা শান্তি প্রতিসঠা করা সম্ভব নয়। চেস্টা করে দেখতে পারেন।
    Total Reply(0) Reply
  • Jahid Hasan ২০ মার্চ, ২০১৯, ৪:২১ পিএম says : 0
    প্রতিটি দোকান,রেস্টুরেন্ট,হোটেল,এইসব দোকানে একটা সাইনবোর্ড লাগিয়ে বুঝিয়ে দিতে হবে সেখানে লিখা থাকবে শিশুদের চাকরী দেওয়া হয় না আর আরিফ ও তার সপ্ন কে বাস্তবায়ন করতে দেয় নি সেই সব শয়তানদের শাস্তি চাই
    Total Reply(0) Reply
  • farjana akter ২৯ মার্চ, ২০১৯, ৪:৩১ পিএম says : 0
    সত্যি বলতে দেশ নয়।দেশের মানুষ,চিন্তা ধারনা,প্রশাসনিক ব্যবসা ও সরকার এসব ঠিক হলেই দেশ ঠিক দেশের পরিস্থিতি ঠিক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিহত

৩০ মার্চ, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ