Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

কলাপাড়া ডিজিটাল পৌরসভার নিরবিচ্ছিন্ন পানি সেবা

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০১৯, ৫:৩৫ পিএম

পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌরসভার প্রায় পঁচিশ হাজার নাগরিকের নিরবিচ্ছিন্ন পানি সেবা নিশ্চিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে পৌরসভা। এ লক্ষ্যে ১২ কোটি ৫২ লক্ষ ২৯ হাজার ৪১১ টাকা ব্যয়ে ৫ লক্ষ লিটার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন নতুন আরও একটি ওভার হেড ট্যাংক শীঘ্রই যুক্ত করা হচ্ছে পানি সংরক্ষণ ও সরবরাহের কাজে। এছাড়া বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে ওভার হেড ট্যাংকে পানি উত্তোলনের জন্য প্রায় ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে একটি জেনারেটর ক্রয় করার পরও পানি শাখার কর্মকর্তারা বলছেন নিরবিচ্ছিন্ন পানি সেবা নিশ্চিতে নতুন পাম্প চালু এবং জেনারেটর এর বিকল্প নেই ।
জানা যায়, ৩.৭৫ বর্গ কিলোমিটার আয়তন নিয়ে ১মার্চ ১৯৯৭ কলাপাড়া পৌরসভা স্থাপিত হয়। ১৩ জুলাই ২০১৫ এটি প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত হয়। বর্তমানে পৌরসভার জনসংখ্যা প্রায় পঁচিশ হাজার, ২০১১ সালের আদম শুমারী অনুযায়ী পৌরসভার জনসংখ্যা ছিল ১৯৭৮২ জন। প্রতি ২৪ ঘণ্টায় পৌরবাসীর পানি চাহিদা রয়েছে ১৫০০ মিটার কিউব বা ১৫ লক্ষ লিটার। কিন্তু ১টি ওভার হেড ট্যাংকে পানি উত্তোলন সক্ষমতা রয়েছে মাত্র ৫০০ মিটার কিউব বা ৫ লক্ষ লিটার। বিদ্যুতের অনুপস্থিতিতে বিকল জেনারেটর দিয়ে পানি উত্তোলন সম্ভব না হলেও পানি লাইনের সংযোগ রয়েছে ২৭৮১টি। ফলে বিদ্যুৎ না থাকলে পানিও থাকছেনা পানি সরবরাহ লাইনে। এতে পানি সংকটে প্রতিদিন অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে পৌরবাসী। তাই পৌর জনপ্রতিনিধিরা মঞ্চ, সভা-সমাবেশে পৌরবাসীকে ডিজিটাল পৌরসভা নির্মাণের স্বপ্ন দেখালেও নাগরিকদের কাছে বাস্তব চিত্র অন্যরকম। যদিও পানি খাতে পৌরসভার মাসিক গড় আয় প্রায় ৮ লক্ষ টাকা এবং মাসিক ব্যয় প্রায় দুই লক্ষ টাকা। তন্মধ্যে গত ফেব্রুয়ারি মাসে পৌরসভার পানি শাখার মোট আয় ৮ লক্ষ ৩৭ হাজার ৫২৬ টাকা।
পৌরসভার পানি শাখার বিল ক্লার্ক মো: আলমগীর হোসেন জানান, পৌরশহরে ২৪ ঘণ্টায় নাগরিকদের যে পরিমাণ পানি চাহিদা রয়েছে সে পরিমাণ পানি সংরক্ষণ ও সরবরাহের সক্ষমতা নেই পৌরসভার। নতুন ওভার হেড ট্যাংকটি চালু হলে পরিস্থিতির অনেকটা উন্নতি হবে। তবে বিদ্যুতের লোড শেডিংয়ে পানি উত্তোলন ব্যহত হচ্ছে। এছাড়া বর্তমানে যে জেনারেটরটি রয়েছে তা দুই ঘন্টা চালালে ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কলাপাড়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ