Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৭ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মসজিদে হামলা নিয়ে ট্রাম্পের বিতর্কিত টুইট

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মার্চ, ২০১৯, ৪:৪৩ পিএম

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে পৃথক মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় দেশটির জনগণের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুক্রবার এ সংক্রান্ত এক টুইট করে তাৎক্ষণিক তা আবার মুছে ফেলেন তিনি। পরে যদিও হামলাটিকে ‘ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড’ উল্লেখ করে নিউজিল্যান্ডের জনগণের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে আরও একটি টুইট করেন মার্কিন এ প্রেসিডেন্ট। তবে টুইটের ট্রাম্পের শব্দচয়ন নিয়ে ইতোমধ্যে নানা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। খবর সিএনএন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮টা ১৫ মিনিটে ক্রাইস্টচার্চের পৃথক মসজিদে হামলা ইস্যুতে একটি বিচিত্র টুইট করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। যেখানে না ছিল কোনো সমবেদনা কিংবা না কোনো শব্দ। এতে কেবল মাত্র ট্র্যাজেডি বর্ণিত মার্কিন ব্রেইটাবার্ট সাইটের একটি লিঙ্ক দেওয়া ছিল। যদিও এই টুইটে তাৎক্ষণিক হাজারো রি-টুইট যুক্ত হওয়ার পরপরই তিনি তা ডিলিট করে দেন। পরে আরও একটি টুইট করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
তবে প্রেসিডেন্টের দ্বিতীয় টুইট বার্তাটিও যেন এর বিরুদ্ধে বিতর্ক আরও কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। তার সেই টুইট বার্তাটি বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, সাধারণত যেসব হামলায় মুসলিম কোনো ব্যক্তির সংশ্লিষ্টতা থাকে তাদের ‘সন্ত্রাস, সন্ত্রাসী হামলা’- ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার করে থাকেন ট্রাম্প।
হামলার সঙ্গে কোনো মুসলিম জড়িত থাকলে তিনি সেটিকে ‘ইসলামিক টেরোরিজম’ বলতেই পছন্দ করেন। তবে স্বঘোষিত শ্বেতাঙ্গ উগ্রপন্থী এই সন্ত্রাসীর হামলাকে ‘শ্বেতাঙ্গ অধিপত্যবাদী আতঙ্ক’ বলতে নারাজ মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এমনকি হামলায় কে বা কারা জড়িত তাদের আদর্শিক পরিচয় কী- সে বিষয়েও কোনো ইঙ্গিত বা কোনো ধরনের নিন্দা নেই তার এই বার্তায়।
তাছাড়া ট্রাম্প এও বলেছেন, ‘৪৯ জন নির্দোষ মানুষ নির্বোধ মারা গেছেন’-এক্ষেত্রেও ডাইড (মৃত্যু বরণ) শব্দের ব্যবহার লক্ষণীয়। অন্যান্য হামলার ক্ষেত্রে সাধারণত তিনি কিল্ড (নিহত) শব্দটিকেই ব্যবহার করে থাকেন। এই ভয়াবহ ঘটনায় স্বজনদের হারানো নিউজিল্যান্ডের লোকজনের উদ্দেশে ট্রাম্প ‘বেস্ট উইশেশ’ জানিয়েছেন। যদিও কোনো কষ্টের মুহূর্তে কাউকে সমবেদনা জানানোর ক্ষেত্রে ইংরেজি ভাষায় ‘বেস্ট উইশেশ’ শব্দ যুগলের ট্রাম্প কখনোই ব্যবহার করেন না। তার বদলে তিনি এতে সিম্প্যাথি, কনডোলেন্স ইত্যাদি শব্দের প্রয়োগ করেন। উল্লেখ্য, কেউ কেউ ট্রাম্পের এই টুইটের প্রথম শব্দগুলো নিয়ে ইতোমধ্যে আপত্তি তুলছেন। তার টুইটের রিপ্লাইয়ে ইংরেজিভাষী অনেক ব্যবহারকারী প্রশ্ন করছেন, ‘জনাব প্রেসিডেন্ট, ওয়ার্মেস্ট সিম্প্যাথি বা (উষ্ণ সমবেদনা!) বাক্যটা আসলে কী?’



 

Show all comments
  • Habib Rahman ১৭ মার্চ, ২০১৯, ৭:৩৮ পিএম says : 0
    Donald Trump had producing terrorist world wide. we have the last proved in Syria. IsIs has looting 50 tone gold from Syria and america bring back to their country. so who is the real terror ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ট্রাম্প

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ