Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

প্রিজাইডিং অফিসারকে থাপ্পড় নৌকার প্রার্থীর

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৩:২৪ পিএম
রংপুরের পীরগাছায় একটি ভোট কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসারকে থাপ্পড় দেয়ার অভিযোগে পুলিশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মিলনকে আটক করা হয়েছে।
 
প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে জানা যায়, রোববার দুপুর ২টার দিকে উপজেলা কাশিয়াবাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মিলন তার নেতাকর্মী নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করে অরাজকতার চেষ্টা করেন।
 
এসময় কেন্দ্রটির প্রিজাইডিং অফিসার ও পীরগাছা সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক রেজওয়ানুল হাসান চৌধুরী ঐ প্রার্থীকে কেন্দ্র থেকে চলে যাওয়ার কথা বলেন। এ সময় মিলন উত্তেজিত হয়ে ঐ কর্মকর্তাকে উপর্যপুরি থাপ্পড় মারতে থাকেন।
 
খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার উৎপল সরকারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে নৌকার প্রার্থীকে আটক করে পীরগাছা থানায় নিয়ে যায়।
 
রংপুরের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বলেন, প্রিজাইডিং অফিসারকে থাপ্পড় দেয়ার অভিযোগে প্রার্থীকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।
 
নৌকার প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মিলন জানান, স্থানীয় এমপি ও তার লোকজন জাতীয় পার্টির প্রার্থীর হয়ে কাজ করায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষুব্ধ। ঐ প্রার্থীর পক্ষে ভোট প্রভাবিত করায় প্রতিবাদ করতে গেলে আমাকে থানায় নিয়ে আসা হয়।


 

Show all comments
  • নাসির উদ্দিন ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৬:৪৬ পিএম says : 0
    এমন তো হওয়ার কথা না, মনে হয় ভুল করে গ্রেফতার করেছে
    Total Reply(0) Reply
  • Tusher ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৬:৩২ পিএম says : 0
    এটা কুন শব্ব মানুসের কাজ হতে পারে না
    Total Reply(0) Reply
  • Nur Hossain ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৭:৫২ পিএম says : 0
    এমন সুসময়ে নৌকার প্রার্থীকে চলে যেতে বলা......থাপ্পরত খাবেইইইই। দেখুন আইনের লোক কী বলে লে লে লে লেলেলে।
    Total Reply(0) Reply
  • Bishnu Chandra ১৮ মার্চ, ২০১৯, ৮:১৯ পিএম says : 0
    ঐ ........র প্রাথীর্তা বাতলি করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • রাজন ১৮ মার্চ, ২০১৯, ১১:৩৩ পিএম says : 0
    অনি কি এখন থানায় আছেন
    Total Reply(0) Reply
  • Shahin Alom ১৮ মার্চ, ২০১৯, ১১:৫০ পিএম says : 0
    আমি মনে করি গ্রেপ্তার করাটা সঠিক হয়েছে,কারন নৌকার প্রার্থীকে চলে যেতে বলাটা সাভাবিক কারন অরাজকতা করছিলো বলে তো প্রার্থীকে কেন্দ্র ত্যাগ করতে বলেছেন !সত্য বলে প্রতিয়মান বলে মনে করি।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Harunor Rashid ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:৫৫ এএম says : 0
    এই ঘটনা টা আমার এলাকায় হয়েছে,এখানে মিলনের জনপ্রিয়তা ছিলনা বলে সে এই কাজ করেছে,আর যে আফসার আলি মাষ্টার কে মারছে তিনি একজন মুক্তিজোদ্দা
    Total Reply(0) Reply
  • NANNU chowhan ১৯ মার্চ, ২০১৯, ৮:১৩ এএম says : 0
    Mr.Harunor Rashidke bolsi,eaikhane mashtar shahebke thappor merese aowamilig parthi ihai boro oporadh eaikhane afsar mastar moktijoddah eai kothato bolar proyojon nai,taholeke apni bujhate chachsen moktijoddah na hole take mara jabe?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা পরিষদ নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ