Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

রংপুর বেতার শক্তিশালী হোক

| প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

এমন একটা সময় ছিল, যখন রেডিও পাকিস্তান, ঢাকা এবং বাংলাদেশ বেতার ছিল এ অঞ্চলের প্রধান গণমাধ্যম। পাকিস্তান আমলে হাতেগোনা কয়েকটি সংবাদপত্রের বিপরীতে খবর ও বিনোদনের একটি বড় উৎস ছিল বেতার।
১৯৬৫ সালে ঢাকায় টেলিভিশন কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার পরও গণমাধ্যমের ভূমিকায় বেতার ছিল অগ্রগণ্য। স্বাধীন বাংলাদেশেও বহু বছর বাংলাদেশ বেতার দোর্দন্ড প্রতাপের সঙ্গে এর অস্তিত্ব ঘোষণা করে আসছিল। কিন্তু ক্রমেই বাংলাদেশ বেতারের ভূমিকা নিষ্প্রভ হতে থাকে। টেলিভিশন ও সংবাদপত্রই এখন হয়ে উঠেছে তথ্য ও বিনোদনের প্রধান মাধ্যম। অথচ বাংলাদেশ বেতারকে স্বমহিমায় প্রতিষ্ঠা করা এমন কোনো কঠিন কাজ নয়। মুক্তিযুদ্ধের সময় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের যে ভূমিকা, তা চিরস্মরণীয় হয়ে রয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, এখনও মান্ধাতার আমলের প্রযুক্তি দিয়েই চলছে বেতারের সব কার্যক্রম। আমরা চাই, বেতার বিভিন্ন জাতি গঠনমূলক অনুষ্ঠান এবং উন্নয়নমূলক কাজের জন্য জনগণকে উদ্বুদ্ধকরণ ও উৎসাহ দেওয়া অনুষ্ঠান প্রচার করুক। বাংলাদেশ বেতারের ডিজিটাল যন্ত্রপাতি স্থাপনের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ভিশন-২০২১ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহায়ক হোক। সেই ছোটবেলা থেকেই আমার বেতারের সঙ্গে মধুর সম্পর্ক। রংপুর বেতারের ৫১ বর্ষপূর্তি থেকে এটাই হোক বেতারপ্রিয় সব শ্রোতার চাওয়া।
মেনহাজুল ইসলাম তারেক
মুন্সিপাড়া, পার্বতীপুর, দিনাজপুর



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চিঠিপত্র

১৭ এপ্রিল, ২০১৯
১৬ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ