Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

এখন থেকে ডিড-ডকুমেন্ট করে কাজ করব -শাকিব খান

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

এখন থেকে চিত্রনায়ক শাকিব খান সিনেমার কাজ গুছিয়ে কাজ করবেন। একেবারে পাকাপোক্তভাবে ডিড-ডকুমেন্ট করে সিনেমার নির্মাণ ও মুক্তির দিন-ক্ষণ নির্ধারণ করে পেশাদারভাবে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যে সিনেমা করব ব্যারিস্টারের মাধ্যমে লিখিতভাবে সিস্টেমের মধ্যে কাজ করবো। সিনেমার কাজ শুরু করার আগে ঠিক করা থাকবে মুক্তির তারিখ। এতে করে প্রযোজক বা অন্য কেউ কথার নড়চড় করতে পারবেন না। মুক্তি দেয়ার তারিখ অনুযায়ী কাজ হবে। ভারতের বড় বড় শিল্পীসহ সারাবিশ্বের সুপারস্টাররা এই বিষয় মেনে কাজ করে। কলকাতায় আমি যে কয়টি কাজ করেছি, সবগুলো এই সিস্টেম মেনে করেছি। শাকিব বলেন, কাজের ক্ষেত্রে পুরোপুরি প্রফেশনালিজম থাকবে। আমার প্রযোজিত নির্মাণাধীন পাসওয়ার্ড সিনেমাটিও এ নিয়মে করছি। আগামী ঈদে মুক্তি দেয়ার লক্ষ্যে সিনেমাটি নির্মিত হচ্ছে। দুঃখের বিষয় হচ্ছে, আমাদের প্রযোজক ও নির্মাতারা এসব সিস্টেমের ধার ধারতে চাইনা। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি পিছিয়ে যাওয়ার অন্যতম একটা কারণ এটি। আমি এখন থেকে নতুন এই সিস্টেমে কাজ করবো। সেখানে আমার শিডিউল, শূটিং প্ল্যান, মুক্তির তারিখ সবকিছুই থাকবে। শাকিব উদাহরণ দিয়ে বলেন, শাহেনশাহ সিনেমাটি করার সময় যদি এই সিস্টেম থাকতো, তাহলে মুক্তির তারিখ পেছাত না। সিনেমাটি ভালোবাসা দিবসে মুক্তি দেয়ার কথা ছিল। পরবর্তিতে ২২ মার্চ মুক্তির তারিখ ঠিক করা হয়। এ তারিখেও মুক্তি পাবে না। নোলক সিনেমাটি বৈশাখে মুক্তি দেয়ার টার্গেট করে শুরু করা হয়েছিল। সিনেমাটিতে নবান্নের একটা গানও ছিল। কিন্তু পরিচালক-প্রযোজকের মধ্যকার অমিলের সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে না। তাই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ভারতে সবার একসঙ্গে যেভাবে পেশাদারিত্ব নিয়ে কাজ করেছি, এখানেও সেভাবে করবো। ব্যারিস্টার দিয়ে ডিড-ডকুমেন্টস করানো থাকবে। শাকিব বলেন, আমি আমার দিক থেকে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছি কীভাবে ইন্ডাস্ট্রিকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়া যায়। ভালো কাজের বিকল্প নেই। অনেক শিল্পীর হাতে কাজ নেই, তারাই আমার কাছে এসে বলছে, ভাই কাজ করতে চাই। আমাদের সুযোগ দিন। মিশা ভাইও সেদিন বললেন, কাজ করে যেতে চাই। আর কিচ্ছু চাইনা। আমি চেষ্টা করছি সহশিল্পীদের, পুরাতন পরিচালকদের কাজের সুযোগ করে দিতে। তাই নিজেই লগ্নি করছি। মালেক আফসারি অনেক ভালো মানের নির্মাতা। তাকে আমার প্রডাকশনের সিনেমা করার সুযোগ দিয়েছি। সামনে বদিউল আলম খোকন একটা কাজ করবেন। আমি ইন্ডাস্ট্রিকে বাঁচাতে চাই। অশ্লীল সিনেমার যুগে মান্না ভাই অনেক পরিশ্রম করে সুদিন এনেছিলেন। তারপর আবার কিছু অসাধু মানুষের জন্য সিনেমায় দুর্দিন আসে। এ অবস্থা থেকে বের হওয়ার জন্য আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন