Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ময়লা ছড়ানোর কথা জানতেন না মেয়র

ডিএনসিসির কর্মকর্তা বরখাস্ত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

পরিচ্ছন্নতা অভিযান উদ্বোধনের আগে রাস্তায় ময়লা ছড়ানোর বিষয়ে অবগত ছিলেন না বলে বিবৃতি দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোহাম্মদ আতিকুল ইসলাম। গতকাল সোমবার ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মামুনের পাঠানো এক বিবৃতিতে মেয়র এ কথা বলেন।
বিবৃতিতে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘ময়লা ছড়িয়ে ময়লা পরিষ্কার’ শিরোনামে একটি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ আমাদের দৃষ্টি গোচর হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে আমার বক্তব্য হলো, ঢাকা নগরীকে সুস্থ, সচল, গতিময় ও আধুনিক করার প্রয়াসে ডিএনসিসি একটি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে কাজ করছে। গত রোববারের পরিচ্চন্নতা অভিযান ও দেয়ালচিত্রণ তারই সূচনা মাত্র। ওই দিনের অভিযান ও দেয়ালচিত্রণে শিক্ষর্থী, অটিস্টিক শিশু, শ্রমিক, ব্যবসায়ী, রাজনীতিকর্মীসহ সর্বস্তরের শ্রেণী-পেশার মানুষের স্বতঃস্ফ‚র্ত অংশগ্রহণ ছিল উল্লেখযোগ্য।
ডিএসসিসি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মানুন বলেন, ময়লা পরিষ্কার করার আগে ময়লা ফেলার ঘটনাটি ছিল অত্যন্ত দুঃজনক। এটি সম্পর্কে মেয়র কিংবা ডিএসনসিসি’র উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কেউ অবগত ছিলেন না। কিভাবে এ ধরণের একটি দুঃজনক ঘটনা ঘটলো এবং কারা এর সাথে জড়িত তদন্তপূর্বক তা বের করে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য মেয়র আতিকুল ইসরাম নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, একটি সুস্থ, সচল, গতিময় ও আধুনিক ঢাকা বিনির্মাণে ডিএনসিসি’র প্রতিটি রাস্তা, গলি, দেয়াল, ড্রেন পরিচ্ছন্ন করা হবে বলে মেয়র তার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেন। ‘সবাই মিলে সবার ঢাকা’ বিনির্মাণে মেয়র আতিকুল ইসলাম সকল সাংবাদকর্মীর সর্বাত্মক সহযোগীতা কামনা করেন।
এদিকে পরিষ্কার রাস্তায় ময়লা ফেলার নির্দেশ প্রদান করায় ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের এক কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়াও এক ওয়ার্ক সুপারভাইজারকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন ডিএনসিসি’র মেয়র আতিকুল ইসলাম। গতকাল সোমবার ডিএনসিসি’র জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মামুনের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে ডিএনসিসি আয়োজিত পরিচ্ছন্নতা অভিযান ও দেয়ালচিত্রণকালে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের কাগজের টুকরা পরিষ্কার রাস্তায় ছড়ানোর নির্দেশ দেন নির্বাহী প্রকৌশলী ও অতিরিক্ত প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) এসএম শফিকুর রহুমান। এ কারণে ডিএনসিসি’র মেয়র মোহাম্মদ আতিকুল ইসলামের অনুমোদনক্রমে এসএম শফিকুর রহুমানকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই কাজে জড়িত থাকায় বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের কাজের ঠিকাদার কর্তৃক নিয়োগকৃত ওয়ার্ক সুপারভাইজার মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিনকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়। এছাড়া ডিএনসিসি’র প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আমিনুল ইসলামকে সভাপতি করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি আগামী ৭ কর্মদিবসের মধ্যে মেয়র বরাবর তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডিএনসিসি


আরও
আরও পড়ুন