Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ডিম মেরে ৩৩ লাখ টাকা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্যের প্রতিবাদে সিনেটরের মাথায় ডিম ফাটিয়েছিলেন। তার জেরে রাতারাতি তারকা হয়ে যান অস্ট্রেলিয়ার কিশোর উইল কনোলি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার পাশে দাঁড়িয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। মুক্তহস্তে তার জন্য দান করেছেন নেটিজেনরা। যাতে একদিনেই ৪০ হাজার ডলার বা প্রায় ৩৩ লাখ টাকা উঠে এসেছে বলে অস্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে।

চলতি সপ্তাহের ঘটনা। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দু’টি মসজিদে হামলা চালায় এক শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী। তাতে প্রাণ হারান ৫০ জন নিরীহ মানুষ। কিন্তু হামলাকারীর সমালোচনার পরিবর্তে গোটা ঘটনার জন্য মুসলিম অভিবাসী ও শরণার্থীদেরই দায়ী করেন অষ্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের সিনেটর ফ্রেজার অ্যানিং। তার মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়।
গত শুক্রবার মেলবোর্নে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হন ফ্রেজার অ্যানিং। সেই সময় পিছন থেকে তার মাথায় কাঁচা ডিম মারে উইল কনোলি নামের ওই কিশোর। মুহূর্তের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় সেই ভিডিয়ো। তাতে উইলকে দু’ঘা বসিয়ে দিতেও দেখা যায় ফ্রেজার অ্যানিংকে।
গোটা ঘটনায় উইল কনোলির পাশেই দাঁড়ান নেটিজেনরা। সমালোচনা করেন ফ্রেজার অ্যানিংয়ের। এমনকি সিনেটর পদ থেকে তার অপসারণ চেয়ে ইতোমধ্যে পিটিশনেও সই করেছেন লাখ লাখ মানুষ। তবে ঘটনাটি নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। তাতে উইলকে আইনি ঝামেলা পোহাতে হতে পারে। তাই তার জন্য ‘গো ফান্ড মি’ ওয়েবসাইটে ‘মানি ফর এগবয়’ নামের একটি দান তহবিল গড়ে তোলা হয়।
বাংলাদেশী মুদ্রায় দুই লাখ টাকার মতো সংগ্রহের লক্ষ্য নিয়ে ওই তহবিলটি গড়া হয়েছিল। যাতে করে উইলের আইনি খরচও উঠে আসে এবং আরও ডিম কেনা যায়। কিন্তু একদিনেই তাতে ৩৩ লাখ টাকা জমা পড়ে। প্রায় তিন হাজার মানুষ উইলের জন্য মুক্তহস্তে দান করেছেন। ৩০ হাজার টাকার বেশিও জমা দিয়েছেন কেউ কেউ।
তবে অত টাকা নিতে রাজি নয় বলে অষ্ট্রেলীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে উইল। আইনি খরচ বাদ দিয়ে পুরো টাকাটাই ক্রাইস্টচার্চ হামলায় নিহতদের পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে সে। সূত্র : নিউজ এইট্টিন।



 

Show all comments
  • নুরুল আমিন ১৯ মার্চ, ২০১৯, ২:২২ এএম says : 0
    সে আসলেই একজন মহান মানুষ
    Total Reply(0) Reply
  • শাজাহান ১৯ মার্চ, ২০১৯, ২:২৩ এএম says : 0
    অনতিবিলম্বে তার মুক্তির দাবি জানাচ্ছি
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নিউজিল্যান্ড


আরও
আরও পড়ুন