Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ১৭ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

নিউজিল্যান্ডের দুই মসজিদে হত্যাকাণ্ডে নিন্দা ও প্রতিবাদ

স্টাফ রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ১৯ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে জুমার নামাযের সময় এক শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসীর নারকীয় হত্যাযজ্ঞের প্রতিবাদে গতকাল ইসলামী আন্দোলন ঢাকা জেলা ও তাহফিজে হারামাইন পরিষদ পৃথক পৃথক বিবৃতিতে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। এ নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ব্যাপারে বিশ্বনেতাদের শুধু নিন্দাই যথেষ্ট নয়। সাম্রাজ্যবাদীরা বিশ্বব্যাপী ইসলাম শূণ্য করতে হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে।
ইসলামী আন্দোলন ঢাকা জেলা
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলা শাখা সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ আলী মোস্তফা ও সেক্রেটারী আলহাজ্ব শাহাদাত হোসাইন এক বিবৃতিতে বলেছেন, বিশ্বব্যাপী ইসলাম ও মুসলিমন শূন্য করতে ঈঙ্গ-মার্কিন সাম্রাজ্যবাদী শক্তি ও তাদের দোসররা উঠেপড়ে লেগেছে। ইঙ্গ-মার্কিন সন্ত্রাসীরা ফিলিস্তিন, কাশ্মির, মিয়ানমার, আফ্রিকা, সিরিয়া, লন্ডন, নিউজিল্যান্ডের মুসলমানদের ওপর হামলা, খুন ও নারী ধর্ষণ ঘটনা অব্যাহতভাবে চালাচ্ছে। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে নূর ও অন্য দুইটি মসজিদে নামারত অবস্থায় খ্রিস্টান সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে শতাধিক মুসল্লী হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের হৃদয়ে আঘাত করেছে। ঈঙ্গ-মার্কিন গোষ্ঠী পরিকল্পিতভাবে টেরোরিস্ট আখ্যা দিয়ে মুসলমানদের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে আসছে। অথচ ইতোপূর্বেও বিভিন্ন ঘটনায় প্রমাণিত হয়েছে বিভিন্ন ধর্মের লোকেরা সন্ত্রাসের সাথে সরাসরি জড়িত। আজকে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলায় জড়িতদের নাম প্রকাশ হয়েছে। তিনি অবিলম্বে এ হামলার আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি করেন এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
তাহফিজে হারামাইন পরিষদ
তাহফিজে হারামাইন পরিষদ বাংলাদেশ-এর সভাপতি মাওলানা সাদেক আহমদ সিদ্দিকী এক বিবৃতিতে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে জুমার নামাযের সময় এক শ্বেতাঙ্গ সন্ত্রাসী কর্তৃক নারকীয় সন্ত্রাস চালানোর তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, এ ভয়াবহ ও নৃশংস হত্যাকান্ডের ব্যাপারে বিশ্বনেতাদের শুধু নিন্দা ও সমবেদনা জানানোই যথেষ্ট নয়; বরং এ ধরনের পরিকল্পিত সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সাহসের সাথে সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে রুখে দাঁড়াতে হবে।
মাওলানা সাদেক আহমদ সিদ্দিকী আরো বলেন, এ জঘন্য সন্ত্রাসীর নিজেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের একজন সমর্থক এবং অভিবাসনবিরোধী বলে দাবি করায় বুঝা যায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ ঘটনার দায় এড়াতে পারবে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ