Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

রোহিঙ্গা নিপীড়ন খতিয়ে দেখতে মিয়ানমারে সামরিক আদালত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

২০১৭ সালে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দমনাভিযান চালানোর সময় সেনাদের আচরণ তদন্ত করে দেখার জন্য একটি সামরিক আদালত গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। ওই দমনাভিযানের মুখে পালিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশে আশ্রয় নেয় ৭ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা। দুই মেজর জেনারেল এবং দুই কর্নেল নিয়ে গঠিত এ আদালত ২০১৭ সালের আগস্টে পশ্চিম মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে ঘটে যাওয়া ঘটনাবলী তদন্ত করে দেখবে। সেনাবাহিনীর কমান্ডার ইন চীফ ঊর্ধ্বতন জেনারেল মিন অং হ্লাইংয়ের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে সেনাবাহিনী একথা জানিয়েছে। এতে বলা হয়, প্রতিটি ঘটনা আরো খতিয়ে দেখা এবং নিশ্চিত করার জন্য একটি তদন্ত আদালত গঠন করা হয়েছে। জাতিসংঘ, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতো সংগঠনগুলোর উত্থাপিত হত্যা, ধর্ষণ ও জ্বালাও-পোড়াওয়ের অভিযোগ খতিয়ে দেখবে এ আদালত। ২০১৭ সালে সীমান্তের কাছে মিয়ানমারের নিরাপত্তা ফাঁড়িয়ে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের কয়েকদফা হামলার পর মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর দমনাভিযান শুরু করে। এরপর গতবছর জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন অভিযোগ করে, ‘গণহত্যার উদ্দেশ্য’ নিয়েই রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছিল সেনাবাহিনী। একে আন্তর্জাতিক আইনের মারাত্মক লঙ্ঘন আখ্যা দিয়ে তারা মিন অং হ্লাইংসহ আরও পাঁচজন জেনারেলকে অভিযুক্ত করার সুপারিশ করে। রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ