Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।
শিরোনাম

শ্বশুরবাড়িতে জামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু

স্বজনদের দাবি হত্যা

বড়াইগ্রাম (নাটোর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

শ্বশুরবাড়িতে রফিকুল ইসলাম (৪৪) নামে এক ঘর জামাইয়ের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার রাতে বড়াইগ্রাম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। নিহত রফিকুল ইসলাম বড়াইগ্রাম পৌরসভার রয়না মহল্লার আব্দুল করিমের ছেলে।
নিহতের পিতা আব্দুল করিম জানান, রফিকুল বেশ কয়েক বছর ধরে পাশের গুরুদাসপুর উপজেলার ধানুড়া গ্রামে শ^শুর আব্দুল জলিলের বাড়িতে ঘর জামাই থাকতেন। রোববার রাতে তিনি লোক মারফত খবর পান যে, তার ছেলেকে শ্বশুর-শ্বাশুড়ি ও শ্যালক মিলে শারীরিক নির্যাতন করে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখেছে। গত সোমবার ভোরে তারা সেখানে গিয়ে বারান্দায় তার ছেলেকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে সেখান থেকে নিয়ে এসে বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করলে রাতে রফিকুল মারা যান। শ^শুর ও শ্যালকেরা রফিকুলের গোপনাঙ্গে গুরুতর আঘাত করায় তার ছেলের মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি জানান। এর আগেও কয়েক দফা রফিকুলকে তার শ^শুর বাড়ির লোকজন মারপিট করেছে বলেও তিনি জানান। তবে নিহতের শ^শুর আব্দুল জলিলের দাবি, বিষাক্ত ট্যাবলেট সেবনে তার জামাইয়ের মৃত্যু হয়েছে।
বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক তারেক জানান, মৃত্যুর সঠিক কারণ জানার জন্য তার লাশ ময়নাতন্ত করতে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলেই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
বাল্য বিয়ের বলি হলো কিশোরী তানিয়া
নাটোরের বড়াইগ্রামে জোর পূর্বক শ^শুর বাড়িতে পাঠানোর চেষ্টা করায় তানিয়া খাতুন (১৩) নামে এক কিশোরী বধ‚ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তার লাশ পোস্টমর্টেমের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এর আগে গত সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার রামেশ্বরপুর গ্রামে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে। তানিয়া একই গ্রামের আবু তাহেরের মেয়ে। সে রামেশ্বরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীতে পড়তো।
স্থানীয়রা জানান, প্রায় মাস ছয়েক আগে কিশোরী তানিয়া খাতুনকে মতের বিরুদ্ধে প্রতিবেশী রেজাউল ইসলাম সরকারের ছেলে শাকিল আহমেদের সঙ্গে বিয়ে দেয় তার বাবা-মা। এরপর থেকেই তার মায়ের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়ে তানিয়া। তাকে নানা সময় জোর করে শ্বশুর বাড়ি পাঠায় তার মা। সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার শ্বশুর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে আসে তানিয়া। সোমবার বিকালে পুনরায় তাকে শ্বশুর বাড়িতে যেতে বললে মায়ের সঙ্গে ঝগড়া হয় তার। এরই জের ধরে সন্ধ্যার দিকে সবার অগোচরে তার বাবার বাড়ির একটি ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে তানিয়া।
বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলিপ কুমার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে যুবক গ্রেফতার
নাটোরের বড়াইগ্রামে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ইমরান শেখ (২৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত সোমবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইমরান শেখ বনপাড়া পৌরসভার গুনাইহাটি গ্রামের একরামুল ইসলামের ছেলে।
বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলিপ কুমার দাস জানান, গত ১১ মার্চ রাতে উপজেলার মাঝগাঁও ইউনিয়নের ছাতিয়ানগাছা গ্রামের পিতৃহীন ওই ছাত্রী প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে যায়। এ সময় বনপাড়া পৌরসভার গুনাইহাটি এলাকার একরামুল ইসলামের ছেলে ইমরান শেখ ও করিম ড্রাইভারের ছেলে সোহাগ সেখ (২৮) মেয়েটির মুখ চেপে ধরে বিলের মধ্যে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ছাত্রীটি ইমরান হোসেনের গোপনাঙ্গে আঘাত করে সেখান থেকে পালিয়ে আসে। পরে বাড়িতে ফিরে মেয়েটি তার মা ও স্বজনদের ঘটনাটি জানায়। পর দিন এ ব্যাপারে তার মা বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় ইমরান ও সোহাগকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত অপর আসামী সোহাগকেও আটকের জোর তৎপরতা চলছে বলে তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন