Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

চিকিৎসক থেকে মুখ্যমন্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

রাজনৈতিক সঙ্কট কাটাতে মরিয়া ছিল বিজেপি। সোমবার রাতে গোয়ার একাদশতম মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন বিধানসভার প্রাক্তন স্পিকার প্রমোদ সবন্ত। প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পর্রীকরের ‘অত্যন্ত কাছের মানুষ’ বলে পরিচিত সবন্ত। অনেকেই তাকে পর্রীকরের ‘কান’ বলতেন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার আগে এই নেতা গোয়াতেই ডাক্তারি করতেন। তাকে বহুমুখী প্রতিভাসম্পন্ন, বলছেন অনেকেই।
৪৫ বছরের সবন্ত মহারাষ্ট্রের কোলহাপুরের গঙ্গা আয়ুর্বেদিক মেডিক্যাল কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেছেন। গোয়াতেই প্র্যাক্টিস করতেন তিনি। পরবর্তীতে পুণে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে তিলক মহারাষ্ট্র বিদ্যাপীঠ থেকে সোশ্যাল ওয়েলফেয়ারে স্নাতকোত্তর স্তরের পাঠ শেষ করেন তিনি। তার আগে থেকেই রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করতেন তিনি। গোয়ার উত্তরে খনি এলাকায় পরিচিত নাম ছিলেন প্রমোদ। পরবর্তীতে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি ছিলেন তিনি।
খনি এলাকায় প্রমোদের পরিচিতি বিজেপির সুবিধা বাড়াবে বলেই মনে করা হচ্ছে। এই এলাকারই বিধায়ক তিনি। প্রমোদ দলীয় কর্মীদের কাছে বিনয়ী, নম্র স্বভাবের মানুষ হিসেবেই পরিচিত, এমনটাই জানান গোয়া বিজেপির মুখপাত্র দত্তপ্রসাদ নায়েক। তিনি জানান, প্রমোদ একাই নন। প্রমোদের স্ত্রীও সক্রিয় রাজনীতিতে যুক্ত। বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভাপতি প্রমোদের স্ত্রী সুলক্ষণা।
বহু বছর ধরেই সক্রিয় রাজনীতিতে যুক্ত প্রমোদ। তাই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে সক্ষম হবেন তিনি, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। যদিও মনোহর পর্রীকরের উত্তরাধিকার হিসাবে তাকে মনোনীত করা অবশ্য মোটেই সহজ ছিল না বিজেপি নেতৃত্বের কাছে। মুখ্যমন্ত্রিত্বের জন্য দাবি তুলেছিলেন বিজেপির দুই শরিক এমজিপি এবং জিএফপি। বিজেপির অন্দরেও মুখ্যমন্ত্রিত্বের দৌড়ে ছিলেন প্রমোদ এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিশ্বজিৎ রাণে। তবে মুখ্যমন্ত্রী হতে প্রমোদকে যথেষ্ট কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে, এমনটাই বলছে সূত্র। সূত্র: এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিজেপি

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৬ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন