Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী

সেই শাজাহান খান কেন সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ কমিটিতে?

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ৪:১৬ পিএম | আপডেট : ৪:২৬ পিএম, ২০ মার্চ, ২০১৯

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান শাকিল। তিনি উত্তরা ইউনিভার্সিটির ছাত্র। আক্ষেপ করে বললেন, গত বছর যখন জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাসের চাপায় আমাদের দুই ভাইবোন নিহত হলো তখন নিষ্ঠুরভাবে হেসেছিলেন সাবেক নৌমন্ত্রী শাজাহান খান। অথচ সেই লোকটাকে প্রধান করেই সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কি ধরনের রসিকতা!

সু-প্রভাত পরিবহনের বাসচাপায় মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহম্মেদ চৌধুরী নিহতের ঘটনায় দ্বিতীয় দিনের মতো আজ বুধবার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় চলছে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ।
রাজধানীর উত্তরার হাউস বিল্ডিং মোড়ে রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করছিল উত্তরা ইউনিভার্সিটিসহ কয়েকটি স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা।
তুমুল স্লোগানের ফাঁকেই কথা হয় বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে। তারা বলেন, গত বছরও আমাদের আন্দোলন থামিয়ে দেয়া হয়েছিল আশ্বাস দিয়ে। নতুন মেয়র আবারও আমাদের সেই আশ্বাসের ফাঁদে ফেলতে চাইছেন। আমরা আশ্বাসের নামে প্রহসনে আর পা ফেলছি না।
প্রসঙ্গত, গত বছর ২৯ জুলাই জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর নিহত হওয়ার ঘটনায় যখন সাধারণ মানুষ ক্ষোভে ফেটে পড়ে তখন তৎকালীন নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান হাসতে হাসতে দোষীদের শাস্তির কথা জানান। দায়িত্বশীল একজন মন্ত্রীর এমন আচরণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। পরে ক্ষমাও চান শাহজাহান খান।
এবার মন্ত্রিত্ব না পেলেও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের কার্যকরী সভাপতি শাহজাহান খানকে প্রধান করে ১৫ সদস্যের সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণ কমিটি গঠন করা হয়েছে।
এদিকে ওই দুর্ঘটনার পর জাবালে নূর রাস্তায় চলবে না বলে আশ্বাস দেয়া হলেও নতুনভাবে রং লাগিয়ে চলছে সেই বাস।

এ প্রসঙ্গে সালেহ মাহমুদ নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, গতকাল মেয়র বললেন সুপ্রভাত চলবে না। অথচ সন্ধ্যায়ও আবদুল্লাহপুর থেকে যাত্রী নিয়ে তাদের গাজীপুরে যেতে দেখা গেছে।
এ শিক্ষার্থীর প্রশ্ন বাস চলবে না মানে কি রং করে নতুনভাবে রাস্তায় নামা ? যদি তাই হয় তাহলে এমন আশ্বাস আমরা চাই না।



 

Show all comments
  • Billal Hosen ২০ মার্চ, ২০১৯, ৪:১৯ পিএম says : 0
    হে ঈমানদারগণ! তোমরা ন্যায়ের উপর প্রতিষ্ঠিত থাক, আল্লাহর জন্য সাক্ষীরূপে, যদিও তা তোমাদের নিজদের কিংবা পিতা-মাতার অথবা নিকট আত্মীয়-স্বজনের বিরুদ্ধে হয়। সূরা আন-নিসা: ১৩৫।
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammed Shah Alam Khan ২১ মার্চ, ২০১৯, ৮:১২ পিএম says : 0
    সাবেক নৌমন্ত্রী শাজাহান খান সড়ক পরিবহনের উপর একজন বিশিষ্ট অভিজ্ঞ লোক। উনি পরিবহন শ্রমিকদের নিয়েই উনি ওনার কর্মজীবন শুরু করে এখান থেকেই তিনি মন্ত্রিত্ব পেয়েছেন। তিনি পরিবহন বিষয়ে এতই পারদরর্শী যে তাঁর পাশে দাঁড়ানোর মত যোগ্যতা বাংলাদেশে দ্বিতীয় কেহ নেই। তাছাড়া এই পরিবহন সমস্যার উপর সরকার প্রচুর আইন কানুন করার প্রচেষ্টা নিয়েছিলেন কিন্তু বাস্তবায়িত করতে পারেনি। এখন এই শাজাহান খান সাহেব যদি চেস্টা করেন তাহলে আমার মনে হয় দেশে সড়ক পরিবহনে একটা সুস্থ পরিবেশের সৃষ্টি হতে পারে। আমরা ওনাকে নিয়ে অনেক কুটুক্তি বা সমালোচনা করতে পারবো কিন্তু ওনার মত একজন অভিজ্ঞ পরিবহন বিশেষজ্ঞ লোক আমরা দিতে পারবো না এটাই সত্য। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে সহজ ভাবে সব কিছু জানার, বুঝার ও সেই ভাবে কাজ করার ক্ষমতা প্রদান করুন। আমিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ