Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

সান্তাহারে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলা

উভয় পক্ষের আহত ৩, বাড়ীঘর ভাংচুর, ছাত্রলীগের ২ জন আটক, পিস্তল উদ্ধার

আদমদীঘি (বগুড়া) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ৪:২৩ পিএম

উপজেলা নির্বাচন পরর্বতী সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বগুড়ার সান্তাহারে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া বাড়ী ঘরে হামলা এবং মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এত উভয় পক্ষের ৩ জন আহত হয়েছে। আহতদের এক জনকে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করানোর পর অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিক্যাল হাসপাতালে স্থানতর করা হয়। অপর দুই জনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ঘটনার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ আদমদীঘি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান সজল (২২)ও শুভ (২০) নামের অপর এক ছাত্রলীগের নেতাকে আটক করার পর তাদের দেওয়া তথ্যর উক্তিতে পুলিশ খালি ম্যাকজিনসহ একটি এটি বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়েছে।
জানাযায়,গত সোমবার আদমদীঘি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচন পরর্বতী সময় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিজয়ী ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদুর রহমান পিন্টুর ভাগ্নে আদমদীঘি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান সজলসহ ছাত্রলীগের কয়েকজন ছেলে পরাজিত ভাইস চেয়ারম্যান আঃ লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলীর ছেলে ছাত্রলীগ কর্মী রবিনকে কুটুকত্তি করা নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডার এ পর্যায়ে ছাত্রলীগ কর্মী রবিন দলবলসহ শহরের কালি মন্দিরে সামনে সজল গ্রুপের ওপর হামলা করে সাকিল (২০) নামের এক ছাত্রলীগ কর্মীকে মারপিট করে আহত করে। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভুতৃ করানোর পর অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে স্থানতর করা হয়। এ ঘটনার কিছুক্ষন পর ছাত্রলীগ নেতা সজল গ্র“প বিনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার পিতা আঃ লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলী (৬৫) মাতা মুন্নি বেগম (৪০)কে মারপিট করে আহত করেছে। এসময় বিদ্যুতের মিটার টয়লেটের পাইপসহ আসবাব পত্র ভাংচুর করে। পরে বিনের পিতা আঃ লীগ নেতা আনছার আলীর অভিযোগের ভিত্তিতে বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদমদীঘি সার্কেল মোঃ আলমগীর রহমানের নেতৃত্বে আদমদীঘি তানার ওসি মনিরুল ইসলাম সান্তাহার শহর ফাঁড়ির ওসি মুসা মিয়ার উপস্থিতিতে এক অভিযান চালিয়ে থানার এস আই তহিদ বিজয়ী ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদুর রহমান পিন্টুর বাসা থেকে ছাত্রলীগ নেতা সজল ও শুভকে আটক করে এবং আটক ছাত্রলীগ নেতা শুভর দেওয়া তথ্যর উক্তি সজলের বাসা থেকে খালি ম্যাকজিনসহ একটি বিদেশী পিস্তল উদ্ধার করে। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে ও দ্রতবিচার আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়েছে। অস্ত্র আইন মামলার বাদী হয়েছেন এস আই তহিদ এবং দ্রতবিচার আইন মামলার বাদী আঃ লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলী।
এ ব্যাপারে মশিউর রহমান সজলের চাচা আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হক আবু বলেন, উপজেলা নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মাহমুদুর রহমান পিন্টু সজলের মামা জয়ী হওয়ার কারনে একটি মহল এই জয় কে মেনে নিতে না পেয়ে ষড়যন্ত্র করেছে। আমাদের পরিবার ষড়যন্ত্রে শিকার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সান্তাহার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ