Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

উগ্র খ্রিষ্টানদের তৎপরতা বন্ধ করতে বিশ্ব মুসলিমদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের উগ্রবাদী রুখে দিতে হবে

রাউজানে খাজা গরিবে নেওয়াজ (রঃ) জীবনী আলোচনায় আল্লামা জসিম আবেদী

রাউজান উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ৪:৪২ পিএম

রাউজান হলদিয়া ইউনিয়নে মাসিক বারাভী শরিফ,হযরত খাজা গরিবে নেওয়াজ (রঃ),ইমামে গাজী শেরে বাংলা (রঃ),হযরত এয়াছিন শাহ(রহঃ)'র ওরশ শরিফ উপলক্ষে আলোচনা সভা,মিলাদ,জিকির মোনাজাত অনুষ্টিত হয়। মঙ্গলবার রাতে এটির আয়োজন করেন মাসিক বারাভী শরিফ ও খতমে খাজেগান পরিচালনা কমিটি। সর্তার পশ্চিমকুল সর্তাব্রিজ সংলগ্ন রহমানিয়া মসজিদে আয়োজিত মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন আলহাজ্ব মাওলানা এয়াছিন মাইজভান্ডারী। প্রধান অতিথি ছিলেন উত্তরসর্তা গাউছিয়া হাফেজিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক বিশিষ্ট লেখক গবেষক আলহাজ্ব আল্লামা জসিম উদ্দিন আবেদী (মা.জি.আ)। মাওলানা মোজাম্মেল হোসাইনের সঞ্চালনায় প্রধান বক্তা ছিলেন রাউজান প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মাওলানা এম বেলাল উদ্দিন মাইজভান্ডারী। উপস্থিত ছিলেন মাইজভান্ডার দরবারের সৈয়দ নেজাম উদ্দিন মাইজভান্ডারীর,খাদেম আলহাজ্ব মাওলানা সোলাইমান চৌধুরী,ফটিকছড়ি খিরাম কাদেরীয়া মঈনিয়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা আব্দুল মালেক,জেবি নুরিয়ার শিক্ষক মাওলানা হাসান আলী,হাফেজ মাওলানা ওমর ফারুক,মাওলানা মুহাম্মদ শফি,হাফেজ মাওলানা কারী ওসমান গনি,হাফেজ ইয়াহিয়া,মাওলানা তাজ মুহাম্মদ রেজভী,যুবলীগ নেতা মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন,শায়ের মাওলানা ওসমান গনি কাদেরী,মুহাম্মদ বোরহান উদ্দিন,মুহাম্মদ আলী,নুরুল আমিন চৌধুরী,রফিক চৌধুরী,জহুর মিয়া,সাহাব মিয়া,জামাল উদ্দিন,মুহাম্মদ আনোয়ার,আবু ইউছুফ জামলী,মাওলানা কাজেমি রেজা,সৈয়দ কপিল উদ্দিন,তহিদুল আলম,মাওলানা নঈমুল হক,জিয়াউল হক।

প্রধান অতিথি আল্লামা জসিম আবেদী বলেন নিউজিল্যান্ডের মসজিদে জুমার নামাজ রত মুসল্লিদেরকে নির্বিচারে হত্যাকান্ড সমগ্র মুসলিম জাহানকে ভাবিয়ে তুলেছে। তিনি বলেন উগ্র খ্রিষ্টানদের তৎপরতা বন্ধ করতে সারা জাহানের মুসলমানদের ঐক্যের ডাক দিয়ে তাদের উগ্রবাদী রুখে দিতে হবে। তিনি আরো বলেন বিশ্ব মুসলমানের পিঠ দেওয়ালে ঠেকেছে আর বরদাস্ত করার সময় নেই। তিনি আরো বলেন হযরত খাজা মঈনুদ্দিন চিশতী হাছান সঞ্জরী (রহ) ৫ দিন ব্যাতিত সারা বছরই রোজা রাখতেন। তিনি বলেন আমরা নামাজ পড়ি গতানুগতীক,আর খাজা গরিবে নেওয়াজ নামাজ পড়তেন আল্লাহর সাথে সাক্ষাত লাভের মাধ্যমে। তিনি বলেন গরিবে নেওয়াজ রোজা রাখলেও মুছাফির খানা ছিল সকলের জন্য উম্মুক্ত।গরিবে নেওয়াজের হাতে প্রদত্ত হাদিয়া নজরানা ব্যায় করতেন ইসলাম ধর্ম এবং আগত মেহমানদের জন্য। তিনি বলেন খাজা গরিবে নেওয়াজ অনেক সময় চিন্তিত থাকতেন মেহমান মুছাফিরদের কিভাবে আপ্যায়ন করবেন। তখন মহান রবের দরবার থেকে গায়েবী স্বর্ণ মুদ্রা এসে যেত খাজা গরিবে নেওয়াজের জায়নামাজে। তিনি বলেন অলি বিদ্বেষী ও গীবতকারী ব্যাক্তির দোয়া আল্লাহর দরবারে কবুল হবেনা। বারাভী শরিফ পরিচালনা করেন মাওলানা হাফেজ ওমর ফারুক।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন