Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

সাতক্ষীরায় স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী ও তার প্রেমিকের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

সাতক্ষীরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ মার্চ, ২০১৯, ৭:০২ পিএম

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় পরকীয়ার জের ধরে স্বামীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার দায়ে স্ত্রী শাপলা খাতুন ও তার প্রেমিক কবিরুল ইসলামকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

বুধবার (২০ মার্চ) সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরুণাভ চক্রবর্তী এ রায় ঘোষণা করেন।
যাবজ্জীবন কারাদ- প্রাপ্তরা হলেন, কলারোয়া উপজেলার পাঁচনল গ্রামের নিহত নুর মোহাম্মদের স্ত্রী শাপলা খাতুন ও একই গ্রামের মৃত আমিন ঢালীর ছেলে ও শাপলার প্রেমিক কবিরুল ইসলাম।
মামলার বিবরণে জানা যায়, কলারোয়া উপজেলার পাঁচনল গ্রামের নুর মোহাম্মদের স্ত্রীর সাথে কবিরুল ইসলাম পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানির এক পর্যায়ে নুর মোহাম্মদ তার স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা দেয়। এতে তার স্ত্রী শাপলা ও প্রেমিক কবিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে ২০১০ সালের ১৩ ডিসেম্বর রাত ২টার দিকে নুর মোহাম্মদকে ঘুমন্ত অবস্থায় শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।
এ ঘটনায় নিহত নুর মোহাম্মদের বোন স্কুল শিক্ষক ফরিদা খাতুন বাদী কলারোয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই মেজবাহ উদ্দীন, জিয়াউর রহমান ও মহসীন হোসেন দীর্ঘ তদন্ত শেষে এ মামলার আসামি শাপলা খাতুন ও তার প্রেমিক কবিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।
বুধবার এ মামলায় নিহতের দুই শিশু পুত্র মোস্তাক আহমেদ ও মোস্তাক হাসানসহ ২১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরুণাভ চক্রবর্তী স্বামীকে হত্যার দায়ে স্ত্রী শাপলা খাতুন ও তার প্রেমিক কবিরুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদ- প্রদানের আদেশ দেন।
মামলার রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবী ও সাতক্ষীরা জজ কোর্টের এপিপি অ্যাড. ফাহিমুল হক কিসলু জানান, রায় ঘোষণার সময় আসামিরা পলাতক ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ