Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

পাকিস্তানের হামলা ও সহকর্মীর গুলিতে ৪ ভারতীয় সেনা নিহত

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ মার্চ, ২০১৯, ৪:০০ পিএম

কাশ্মীরের রাজৌরি সেক্টরে পাক বাহিনী বৃহস্পতিবার সকালে আবারো হামলা করেছে। নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে সংঘর্ষ বিরতি রীতি লঙ্ঘন করে এ হামলায় নিহত হয়েছেন ভারতীয় এক সেনা সদস্য। এদিকে, অধিকৃত কাশ্মীরে কর্তব্যরত অবস্থায় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফ’র তিন সদস্যের মৃত্যু হল তাদেরই এক সহকর্মীর গুলিতে।
জানা যায়, বুধবার রাতে জম্মু-কাশ্মীরের উধমপুরে সিআরপিএফ ক্যাম্পে এক সদস্যের চালানো গুলিতে নিহত হয় বাকি তিনজন। পরে সেও আন্তহত্যার চেষ্টা করে। তার অবস্থাও সঙ্কটজনক।
তিন নিহত জওয়ান রাজস্থানের ঝুনঝুনুর বাসিন্দা পোকারমাল আর, দিল্লির বাসিন্দা যোগেন্দ্র শর্মা, হরিয়ানার রেওয়ারির বাসিন্দা উমেদ সিংহ সিআরপিএফের হেড কনস্টেবল বলে জানা গিয়েছে। যিনি গুলি চালিয়েছেন তিনি কনস্টেবল অজিত কুমার। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই তিন হেড কনস্টেবলের।
কনস্টেবল অজিত কুমার কেন এমন কাজ করলেন তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি সিআরপিএফ। তবে বাহিনী সূত্রের খবর, ওইদিন রাতে ১০টা নাগাদ তাদের মধ্যে কোনও একটা বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। তারপরই আচমকা অজিত গুলি চালিয়ে দেন। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই তিন জনের। এরপর নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করেন অমিত। তাকে উদ্ধার করে সেনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, মাস দু’য়েক আগে ৭ জানুয়ারি ঠিক এমনই ঘটনা ঘটেছিল শ্রীনগরের পাঁঠচকের সিআরপিএফ ক্যাম্পে। সে বারও দুই সহকর্মী জওয়ানকে গুলি করে খুন করার পর আত্মহত্যা করেছিলেন এক জওয়ান।
এদিনই কাশ্মীরের বারামুলা জেলার সোপোর শহরে নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছোড়া হলে জখম হয়েছেন তিন পুলিশকর্মী। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে রয়েছেন ডাঙ্গিওয়াচা থানার ওসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ