Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বিন্দু গল্প দেখা

সা হি দা সা ম্য লী না | প্রকাশের সময় : ২২ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

অজানা!! তোমার জন্য অজানা সুখগুলো নিয়মের বহতায় এগিয়ে যাচ্ছে। তোমার জন্য আজও আমি অপেক্ষায়! থরে থরে সাজানো স্বপ্নগুলো এখন অনেকটাই পাহাড় সদৃশ হয়ে গেছে। তাই সেগুলো সামাল দিতে কষ্ট হচ্ছে বেশ! তোমাকে আজও খুঁজে খুঁজে হয়রান। কোথায় তুমি এখনও বলবেনা? রাজধানী টু বরিশাল, বরিশাল টু রাজধানী। আমি তো ক্লান্ত বন্ধু! তবু জীবনের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত দিয়ে তোমাকে খুঁজে যাব।

তোমার নাম্বারটিই এক সময় ছিল আমার একমাত্র সম্বল। আজও তাই। তোমাকে যখন পেয়েছিলাম দৈনিক পত্রিকার মাধ্যমে সেই ২০০৭ -এ...। তখন ফেসবুক আসেনি বা অতটা প্রচলিতও ছিলনা যে বলব আমাকে তোমার আইডিতে অ্যাড কর বা ফেবু কল্যাণে তোমার মুখখানা দেখতাম! সেই সময় তোমার সাথে খুব ফোনে যোগাযোগ হতো। সারাদিন অপেক্ষা হতো, কতক্ষণে আসবে রাত! রাত্রী ভোর হয়ে যেত দুজনের কথামালায় রাত সাজতো প্রেমের বাগানে,তারারা মিটিমিটি হাসতো! কত সুখ মুহুর্তের সময় ছিল দুজনের! অজানা শিহরণে কাঁপতাম দুজনে। না দেখে, শুধু লেখা পড়ে অনেক ভালবেসে ছিলে আমাকে।
যেদিন আমার জীবনের দ্বিতীয় ধাপের গোপন যুদ্ধের কথা জানলে; কষ্ট হয়েছিল তোমার জানি। আর আমার উপর একগাদা অভিমান। ভীষণ নুইয়ে পড়েছিলে বুঝি? ফোন প্রায়ই ধরতে না তখন। আর আমি ছটপট করতাম তোমার সাথে কথা না বলতে পেরে।
২০১৩ তে হঠাৎ একটি ফোন! অনেকক্ষণ কথা হলো। প্রথমে না চেনার ভানে ছিলাম । তুমি হাসলে আর বললে বুঝেছি অভিমান করেছ, তারপর দীর্ঘক্ষন কথা-কেমন আছি;কী করছি সব। অনুরোধ করলে আর কাউকে যেন আমার লাইফের অজানা কথাগুলো না বলি। তোমার কথাটি রেখেছি বন্ধু! ব্যালেন্স শেষ হতেই কেটে যায় ফোন কানেকশান। আমি তখনও ছিলাম অভিমানে। তাই আর ব্যাক করাও হয়নি। তোমাকে দেখার এতটুকু ইচ্ছা এখনও পূরণ হয়নি। আজও কী তুমি দেবেনা দেখা? ফেসবুকেও তোমাকে খঁজে পাইনা। কী নামে আইডিতে আছ কিছুই তো জানিনা। ইমরুল কায়েস নাকি অজানা? না কি অন্য কিছু?
আজ তোমাকে ফোন করব; নিয়মিত হব আবার ফোনে। যন্ত্রনা দিব ফোন করে আগের মত। জান তোমার সাথে যোগাযোগ বন্ধের পর ফোনে আর কথা বলতে ভাল লাগেনা। অনেকে চায় নাম্বার, খুব বিরক্ত হই। আমি আছি যে তোমার প্রতিক্ষায়! ফেসবুক আইডি চাই তোমার, নতুবা সরাসরি দেখা। আর নয়তো, প্রস্তুত থেকো সেই যন্ত্রনা ভোগের রিহার্সেলের।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন