Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ক্যামেরন আমাকে আহাম্মক বললেও আমি আহাম্মক নই

ট্রাম্পের কড়া জবাব : মেয়র সাদিক খানের বক্তব্য ভুলব না

প্রকাশের সময় : ২০ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেনের মধ্যকার বিশেষ সম্পর্ক দীর্ঘদিনের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলেও ধারণা করা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচিত হলে এই সম্পর্কের ধারাবাহিকতা আর টিকবে না। ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন এবং লন্ডনের নবনির্বাচিত মেয়র সাদিক খান উভয়ই কঠোর ভাষায় ট্রাম্পের মুসলিমবিরোধী বক্তব্যের সমালোচনা করেছেন। নির্বাচিত হলে মুসলমানদের যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেয়া হবে বলে ডোনাল্ড ট্রাম্প যে কথা বলেছেন তাকে আহম্মকের মতো বক্তব্য এবং ভুল বলে সমালোচনা করেছেন ক্যামেরন। পাশাপাশি লন্ডনের নতুন মেয়র সাদিক খান বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান মনোনয়নপ্রত্যাশী ট্রাম্প ইসলাম সম্পর্কে নিতান্তই অজ্ঞ। তিনি তাকে ইসলাম সম্পর্কে শিক্ষা দেয়ারও ইচ্ছা প্রকাশ করেন।
পক্ষান্তরে তাদের এ বক্তব্য নাকচ করে দিয়ে ট্রাম্প এবার মুখ খুলেছেন আরো কঠোর ভাষায়। তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন, ব্রিটিশ নেতাদের বক্তব্য তিনি ভুলবেন না। ব্রিটেনের আইটিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ক্যামেরনের বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে ট্রাম্প বলেন, ব্রিটেনের সঙ্গে সম্ভবত যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক আর আগের মতো মধুর থাকছে না। তিনি বলেন, আমি ক্যামেরনের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক রাখতে চাই কিন্তু তিনি সম্ভবত সেটা চান না। ট্রাম্প দাবি করেন, তিনি আহম্মক নন। আর মেয়র সাদিক খানের বক্তব্যের জবাবে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, লন্ডন মেয়রের বক্তব্য খুবই বাজে ও নোংরা। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, আমি তার এই বক্তব্য মনে রাখব।
অপর এক খবরে বলা হয়, ডোনাল্ড ট্রাম্প সন্ত্রাসীদের ধরিয়ে দিতে মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, উগ্র ইসলাম বিশ্ব জুড়ে প্রচ- সংকট তৈরি করেছে। মুসলিমদের দায়ী করে তিনি বলেন, পৃথিবী জুড়ে বোমা ফুটছে। মুসলিমদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের পুলিশের হাতে তুলে দেবে কিনা। মুসলিমদের সাময়িকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে ঢোকা নিষিদ্ধ করার কথা বলে বিতর্কের জন্ম দেওয়া ট্রাম্প বলেন, তিনি মুসলিমবিরোধী নন, বরং সন্ত্রাসবিরোধী। ব্রিটেনের আইটিভির সাথে এক সাক্ষাৎকাওে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ওই বক্তব্য নিয়ে তার কোনো অনুশোচনা নেই। তিনি বলেন, তার বক্তব্যকে শুধু রাজনীতিকরা সমালোচনা করেছেন। বিশ্বের কোটি কোটি মানুষ বরং বলেছে, ডোনাল্ড ঠিক কথাই বলেছে। আমার ওই বক্তব্যের পর মানুষ চিন্তা করেছে। ব্যক্তিগতভাবে আমার লাভ হয়েছে না ক্ষতি হয়েছে তা নিয়ে আমি পরোয়া করি না।
তাকে অজ্ঞ বলে বর্ণনা করায় লন্ডনের নব-নির্বাচিত মেয়র সাদিক খানের সমালোচনা করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, লন্ডনের প্রথম মুসলিম মেয়র আমার রূঢ় সমালোচনা করেছেন। ট্রাম্প বলেন, সত্যি কথা বলতে কী আমি তার বক্তব্য ভুলব না। মুসলমানদের আমেরিকায় ঢুকতে না দেওয়ার বক্তব্য নিয়ে ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনা করেছিলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরন। তিনি বলেছিলেন, ট্রাম্প মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরি করছেন। তিনি ট্রাম্পের বক্তব্যকে আহাম্মকি বলেও মন্তব্য করেছিলেন। সে প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, ডেভিড ক্যামেরনের সাথে হয়তো তার সুসম্পর্ক থাকবে না। সিএনএন, ওয়েবসাইট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ