Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬, ১৮ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

ভারতে বাড়িতে প্রবেশ করে মুসলিম পরিবারকে নির্যাতন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৯ এএম

ভারতের গুরগাঁওয়ে বাড়িতে ঢুকে একটি মুসলিম পরিবারের ওপর নির্যাতন চালিয়েছে একদল বর্বর হামলাকারী। গত বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টার দিকে গুরগাঁওয়ের ভ‚প সিংহ নামক এলাকায় পরিবারটি এমন সন্ত্রাসের শিকার হয়। খবর এনডিটিভির।
এ নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ওই ভিডিওতে দেখা গেছে, প্রায় ৪০ জনের একটি দল এসে লোহার রড এবং হকি স্টিক দিয়ে পরিবারের পুরুষ সদস্যদের বেধড়ক পেটাচ্ছে। এসময় তাদেরকে না পেটাতে অনুরোধ জানান পরিবারের নারী সদস্যরা। তাতে লাভ হয়নি।
টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, হোলির দিন ক্রিকেট খেলা নিয়ে বাক-বিতন্ডার জেরে এই ঘটনা ঘটে। কট্টরপন্থী হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের মদতে এ নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার। মারধরের সময় দুষ্কৃতিকারীরা ‘পাকিস্তানে যা’ বলে হুমকি দিচ্ছিল বলে জানান তারা।
গুরগাঁও পুলিশ জানিয়েছে, এ হামলা পরিকল্পিত। ঘটনাস্থলে আমরা পৌঁছার পূর্বেই দুষ্কৃতিকারীরা পালিয়ে যায়। অভিযোগের ভিত্তিতে এখন পর্যন্ত ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ। ভিডিও ফুটেজ দেখে বাকিদের খোঁজ করা হচ্ছে।
গুরগাঁওয়ের এসিপি শামসের সিংহ বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে। আক্রান্তরা সংখ্যালঘু স¤প্রদায়ের। তারা বাড়ির বাইরে ক্রিকেট খেলার সময়ই এই ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্তদের সনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।’
ওই মুসলিম পরিবারের ওপর সন্ত্রাসীদের অত্যাচারের ভিডিও ইতিমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন মানুষ। ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে দ্রুত বিচার দাবি করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।
স¤প্রতি বিশ্বজুড়ে মুসলিমদের ওপর বর্ণবাদীদের হামলা ও অত্যাচার পরিলক্ষিত। নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুই মসজিদে শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী হামলা ঘটনার বিশ্ব স্তব্ধ। সে হামলার লাইভ ভিডিওচিত্র ফেসবুকে প্রকাশ করে উগ্রপন্থী সন্ত্রাসী ব্রেন্টন ট্যারান্ট। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও এমন ভিডিও প্রকাশ পেল।



 

Show all comments
  • Murtuza Chowdhury ২৪ মার্চ, ২০১৯, ৩:০৮ এএম says : 0
    ভারতের মুসলমানরা হর হামেশাই মুসলিম বিদ্বেষী উগ্রবাদী হিন্দুদের দ্বারা নির্যাতিত হচ্ছে। উগ্রবাদী সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণে নির্যাতন দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন