Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬, ১৫ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

দুর্বলতা হিসেবে দেখা উচিত নয় : সোহেল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

ভারতে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাইকমিশনার সোহেল মাহমুদ বলেছেন, এ অঞ্চলের ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করেই তার দেশ শান্তি প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ নিয়েছে। তিনি বলেন, পাক সরকারের আলোচনার প্রস্তাবকে দুর্বলতা হিসেবে দেখা ঠিক হবে না বরং নিরাপদ ও আস্থাশীল জাতি গঠনের ক্ষেত্রে একে ‘গঠনমূলক চিন্তা’ হিসেবে দেখতে হবে। ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির পাকিস্তান হাই কমিশনে পাকিস্তান দিবস উপলক্ষে আয়োজিত পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে সোহেল মাহমুদ এসব কথা বলেন। খবরে বলা হয়, শান্তি প্রতিষ্ঠায় ইসলামাবাদ যে প্রস্তাব দিয়েছে ভারতের প্রতি তা গঠনমূলক। এ প্রস্তাবকে পাকিস্তান সরকারের দুর্বলতা হিসেবে দেখা উচিত নয় বলে মন্তব্য করেছেন দিল্লিতে নিযুক্ত পাকিস্তানের হাই কমিশনার সোহেল মাহমুদ। তিনি পাকিস্তান দিবস উপলক্ষ্যে শনিবার পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এসব মন্তব্য করেন। বলেন, ভারতের প্রতি পাকিস্তান শান্তি প্রতিষ্ঠায় যে প্রস্তাবগুলো দিয়েছে তা এ অঞ্চলের ভবিষ্যত শান্তির লক্ষ্যে। নয়া দিল্লিতে পাকিস্তান হাই কমিশন থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের ওইসব প্রস্তাবকে দেখা উচিত একটি নিরাপদ ও আস্থাশীল দেশের গঠনমূলক চিন্তাভাবনা হিসেবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। এর আগে পাকিস্তান দিবসের প্রাক্কালে শুক্রবার একটি অনুষ্ঠানে তিনি অভ্যর্থনা জানান বিভিন্ন জনকে। এতে তিনি কাশ্মির সহ সব দ্বিপক্ষীয় সমস্যা সমাধানে আলোচনার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, পারস্পরিক বোঝাপড়া, উদ্বেগের বিষয়, জম্মু-কাশ্মীর সহ দীর্ঘদিনের বিরোধপূর্ণ ইস্যুগুলোর সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বা অপরিহার্য বিষয় হলো কূটনীতি ও আলোচনা। হাই কমিশনার সোহেল মাহমুদ আরো বলেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানে আটক ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট মিশনে দু’জন হাই কমিশনারকে ফেরত পাঠিয়েছেন। কর্তারপুর করিডোর উন্মুক্ত করে দিয়েছেন আলোচনার মাধ্যমে। এসব বলে দেয় যে, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ইতিবাচক দিকে অগ্রসর হচ্ছে। ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতা লাভের পর গণতন্ত্র, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, স্বাধীন বিচার বিভাগ, অবাধ মিডিয়া ও গতিশীল নাগরিক সমাজ বৃদ্ধির বিষয়ে তিনি পুনর্ব্যক্ত করেন। এর আগে শুক্রবার তিনি এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বলেন, ভারতের সঙ্গে কাশ্মিরসহ দ্বিপক্ষীয় সব ইস্যু নিয়ে আলোচনা হওয়া দরকার। তিনি বলেন, সমস্ত উদ্বেগ দূর করতে এবং পারস্পরিক সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় কূটনীতি ও সংলাপের কোনো বিকল্প নেই। তিনি আরো বলেন, ভারতের আটক পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মুক্তির যে নির্দেশ দিয়েছিলেন তার মধ্যদিয়ে পরিষ্কার হয় যে, দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ইতিবাচক দিকে পরিচালিত হচ্ছে। ডন, পার্সটুডে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ