Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ইউপির পরিস্থিতি পাল্টে দিতে পারেন প্রিয়াঙ্কা

মোদি-মমতাকে ঝাঁজালো আক্রমণ রাহুলের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৭ এএম

ভারতের জাতীয় নির্বাচনে উত্তর প্রদেশকে (ইউপি) বিজেপির সবচেয়ে শক্তিশালী দুর্গ বলা হয়। সেখানে এবার নির্বাচনী প্রচারে নেমেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। এখন প্রশ্ন উঠেছে, তিনি কী পারবেন উত্তর প্রদেশে মোদির দুর্গ ভাঙতে?
রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, উত্তর প্রদেশে কংগ্রেসের তরুণ নেতা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর আগমন নির্বাচনী হিসাব-নিকাশ অনেকটাই পাল্টে দিতে পারে। অপরদিকে কলকাতার জনসভা থেকে প্রিয়াঙ্কার বড়ভাই ও কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এবার এক বন্ধনীতে ফেলে তীব্র আক্রমণ করলেন মোদি ও মমতাকে। তার অভিযোগ, দেশের প্রধানমন্ত্রী ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দু’জনেই ‘লম্বা-চওড়া ভাষণ’ দেন। কিন্তু প্রতিশ্রæতি পূরণ হয় না।
ভারতের নির্বাচনে উত্তর প্রদেশের ফলাফল নিয়ামক ভ‚মিকা পালন করে। তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানেন যে, উত্তর প্রদেশ কতটা গুরুত্বপ‚র্ণ। আর এ কারণেই তিনি এবারও গুজরাটের বাদোদরাসহ বারাণসি থেকে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে কংগ্রেসও তাদের অস্ত্রে শান দিয়েছে। তারা সেখানে পাঠিয়েছে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে।
এখন প্রশ্ন উঠেছে, প্রিয়াঙ্কা কী পারবেন উত্তর প্রদেশে মোদির দুর্গ ভাঙতে? তবে উত্তর প্রদেশে কংগ্রেসের তরুণ নেতা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর আগমন নির্বাচনী হিসাব-নিকাশ অনেকটাই পাল্টে দিতে পারে বলে ধারণা করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। কারণ প্রিয়াঙ্কা রাজনীতিতে নতুন নন। আর কংগ্রেস তাকে সাধারণ সম্পাদক করে উত্তর প্রদেশের প‚র্বাঞ্চলের দায়িত্ব দিয়েছে।
উত্তর প্রদেশে গঙ্গায় দীর্ঘ ১৪০ কিলোমিটার জনসংযোগ যাত্রার শেষ পর্বে মোদির বারাণসিতে গিয়ে নোঙর ফেলে প্রিয়াংকার প্রচার স্টিমার।
বারাণসিতে দাঁড়িয়ে প্রিয়াংকা গত লোকসভা ভোটে বিজেপির ইশতেহার তুলে ধরে বলেন, বারাণসির জন্য মোদিজির দেয়া আটটি প্রতিশ্রæতির কথা এখানে রয়েছে। এর মধ্যে একটিও প‚রণ হয়নি। তিনি এই পাঁচ বছরে কোনো উন্নয়নই করেননি। করেছেন শুধু প্রচার।
প্রিয়াংকার এই গঙ্গাযাত্রা নির্বাচনে নতুন মোড় আনতে পারে। কারণ তার এই যাত্রার খবর মিডিয়া অনেক ফলাও করে প্রকাশ করেছে। সন্ত্রাস দমনেও অনেক নাটক করতে গিয়ে ধরা খেয়েছেন মোদি। সর্বশেষ বালাকোটে জঙ্গি দমনের নাটকের পর্দা সবার সামনে ফাঁস হয়ে গেছে। এ ছাড়া গঙ্গাযাত্রার পূর্বে হনুমান মন্দিরে তার পূজা অর্পণ ভোটারদের মধ্যে কার্যকর ভ‚মিকা রেখেছে।
প্রিয়াঙ্কাকে সবসময় তার দাদী ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে তুলনা করা হয়। যদিও এটি দেখার পালা যে, প্রিয়াঙ্কা তার দাদীর মতো সফল নেত্রী হতে পারেন কিনা। আর ১৯৭৯ সালে ইন্দিরা গান্ধীও গঙ্গাযাত্রা করার আগে হনুমান মন্দিরে গিয়েছিলেন। প্রিয়াঙ্কাও তার দাদীর মতো মাতা নুইয়ে হনুমান মন্দিরে পূজা অর্পণ করেছেন।
এছাড়া প্রিয়াঙ্কা মহিলা ভোটারদের কাছে অনেক বেশি জনপ্রিয়। আর ভারতে এবার পুরুষ ভোটারদের চেয়ে মহিলা ভোটারদের সংখ্যা বেশি। প্রিয়াঙ্কা সেই সুবিধা কাজে লাগানোর চেষ্টা করছেন। প্রিয়াঙ্কা যদি তার কৌশলে সফল হতে পারেন, তা হলে এটি অবশ্যই বিজেপির জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে।
এদিকে, কিছুদিন আগে নরেন্দ্র মোদির বিরোধিতায় তৃণমূলের ডাকা ব্রিগেড সমাবেশে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন জানিয়ে চিঠি পাঠিয়েছিলেন রাহুল। সেই রাহুলই গত শনিবার পশ্চিমবঙ্গের সমাবেশে কর্মসংস্থানের দিশা দেখাতে না পারার জন্য মোদির সঙ্গে এক সুরেই মমতাকে কাঠগড়ায় তুলেছেন।
কৃষক, শ্রমিক বা যুবকদের জন্য মমতার সরকার কী করেছে, প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। একই সঙ্গে রাজনৈতিক সুরে আক্রমণ করে বলেছেন, ‘বাংলার মানুষ আগে বামফ্রন্টের সঙ্গে লড়েছেন। এখন একই অত্যাচার তৃণমূল করছে। তা হলে আর পরিবর্তন কী হল? কংগ্রেস সরকারে এলে তবেই মানুষের জন্য শান্তি ও উন্নয়ন নিশ্চিত হবে।’
বিজেপির বিরুদ্ধে জাতীয় স্তরে বিরোধী ঐক্যের বাতাবরণ গড়ে তোলার জন্য কিছুদিন আগে পর্যন্তও সর্বাত্মক চেষ্টা জারি ছিল। এখন রাজ্যে রাজ্যে আসন ভাগাভাগির ধাক্কায় সেই চেষ্টা থিতিয়ে গেলেও নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতির জন্য দরজা খুলে রেখেছে সবাই। এমন অবস্থায় কংগ্রেস সভাপতিকে বিশেষ পাল্টা আক্রমণে যেতে চাননি তৃণমূল কিংবা সিপিএম। সূত্র : এনডিটিভি ও আনন্দবাজার।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রিয়াঙ্কা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ