Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

২৫ মার্চের গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির ব্যবস্থা নেয়া হবে

আলোচনা সভায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ২৫ মার্চের গণহত্যা বিষয়ে জাতীয়ভাবে দিবস পালিত হলেও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এখনো আমরা পায়নি। গতকাল সোমবার বিকাল জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় আয়োজিত রক্তাক্ত ২৫ মার্চ” শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, ২৫ মার্চের গণহত্যা দিবসের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে প্রয়োজনীয় সকল উদ্যোগ নেওয়া হবে।পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এর পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সকল প্রকার সহায়তা করা হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ৭০ এর নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসনে বিজয়ী হলেও পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী ক্ষমতা হস্তান্তরে টালবাহানা শুরু করে। এতে বাঙালিরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। সারা বাংলায় শ্লোগান ওঠে তুমি কে আমি কে ,বাঙালি বাঙালি, তোমার আমার ঠিকানা পদ্মা মেঘনা যমুনা, বীর বাঙালি অস্ত্র ধরো ,বাংলাদেশ স্বাধীন করো। মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতা কেবল ৯ মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের ফসল নয়। ৪৭ এর দেশ ভাগ, ৫২ এর ভাষা আন্দোলন থেকে ধারাবাহিক সংগ্রামের চূড়ান্ত পরিনতি মুক্তিযুদ্ধ। স্বাধীনতার ইশতিহার প্রণয়নের সময়ই জাতির পিতা, জাতীয় সঙ্গীত ও জাতীয় নীতি চূড়ান্ত করা হয়। মন্ত্রী বলেন, আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় আউয়ুব খানের বিরুদ্ধে অভিযোগেই জানা যায়, দেশকে স্বাধীন করার জন্য বঙ্গবন্ধু অনেক আগ থেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।
মন্ত্রী বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ ছিলো স্বাধীনতা যুদ্ধের পরিপূর্ণ নির্দেশনা। বঙ্গবন্ধু ভবিষ্যত বাণী করে বলেছিলেন, আমি যদি হুকুম দিতে না পারি, তোমরা সবকিছু বন্ধ করে দিবে, যার যা কিছু আছে তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবিলা করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্জিত হলেও অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য আমাদের কাজ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব এস,এম, আরিফ-উর-রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি শাজাহান খান এমপি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো, আক্তারুজ্জামান, স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত বীর প্রতীক লেঃ কর্নেল (অবঃ) কাজী সাজ্জাদ আলী জহির, ২৫ মার্চ রাজারবাগে প্রতিরোধযোদ্ধা বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান মিয়া প্রমূখ।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুক্তিযুদ্ধ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ