Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

ফের হামলা করতে পারে ভারত, আশঙ্কা ইমরান খানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৯, ৪:০০ পিএম

এপ্রিলে অনুষ্ঠেয় ভারতের লোকসভা নির্বাচনে আগে আবারও পাকিস্তানে হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। মঙ্গলবার ইসলামাবাদের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ আশঙ্কার কথা জানান। এ সময় তিনি করাচির উপকূলে এশিয়ার সবচেয়ে বড় তেল এবং গ্যাসের মজুদ শিগগিরই পাওয়া যেতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন। খবর ডন।
ভারতের সঙ্গে চলমান টানাপড়েন নিয়ে ইমরান খান বলেন, আগামী মাসে ভারতের সাধারণ নির্বাচন হওয়ার আগে পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলা চালাতে পারে ভারত। হামলা করে নির্বাচনে ফায়দা লুটার চেষ্টা করতে পারে ভারতের রাজনৈতিক দলগুলো। সতর্ক অবস্থা শিথিল করা চলবে না উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, পাকিস্তানকে আরো সতর্ক থাকতে হবে। প্রসঙ্গত, দখলকৃত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গী হামলা নিয়ে গত মাসে ভারত পাকিস্তানের মধ্যে কয়েকদফা হামলা পাল্টা-হামলা হয়েছেন।
সভায় ইমরান খান করাচির উপকূলে এশিয়ার সবচেয়ে বড় তেল এবং গ্যাসের মজুদ শিগগিরই পাওয়া যেতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন। আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে এ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ ইতিবাচক খবর পাকিস্তানবাসীরা শুনতে পারে বলেও জানান তিনি। তেল-গ্যাস অনুসন্ধান তৎপরতার সফলতার জন্য পাকিস্তানবাসীদের দোয়া করার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, তেল-গ্যাস পাওয়া গেলে পাকিস্তানিদের ভাগ্যের ব্যাপক পরিবর্তন ঘটবে।
ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়, চলতি বছর জানুয়ারি থেকে এক্সোনমোবিল এবং আন্তর্জাতিক তেল অনুসন্ধান কোম্পানি ইএনআই করাচি থেকে ২৩০ কিলোমিটার দূরে গভীর সমুদ্রে কেকড়া ১ নামে পরিচিত এলাকায় তেলের জন্য একটি গভীর কুয়া খনন করছে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কোম্পানি দু’টির কাছ থেকে ইঙ্গিত পেয়েছি যে, সমুদ্রের মধ্যে একটি বিশাল তেল এবং গ্যাসের মজুদ পাওয়ার জোরালো সম্ভাবনা রয়েছে। এবং যদি তা হয়, পাকিস্তান সম্পূর্ণ বদলে হয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, তিনি যখন দায়িত্ব নেন, তখন বিদেশী মুদ্রার রিজার্ভ খুব কম ছিল এবং আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) অত্যন্ত কঠিন অবস্থার সৃষ্টি করেছিল, তবে সংযুক্ত আরব আমিরাত, চীন এবং বিশেষত সউদী আরবের মতো বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলির সহায়তায় সরকার পরিস্থিতি উন্নত করতে পেরেছে। এখন তিনি বলেন, এমনকি আইএমএফ এমনকি তার শর্তাবলী হ্রাস করেছে এবং এখন দেশ সঠিক পথে চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত-পাকিস্তান


আরও
আরও পড়ুন