Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

শৈলকুপায় নৌকার সমর্থকদের উপর হামলা আহত ১৮

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৯, ৫:৫৭ পিএম

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার রুহদাহ ও গোবিন্দপুর গ্রামে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতাং মহিলা ও শিশুসহ ১৮ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে বেশির ভাগ পরাজিত নৌকা প্রার্থীর সমর্থক বলে পুলিশ জানায়। আহতরা জানান, নৌকায় ভোট দেওয়ার কারণে তাদের বাড়িঘরে হামলা, লুটপাট ও মারধর করা হচ্ছে। তছরুপ করা হচ্ছে ক্ষেতের ফসল। সোমবার রাতে রুপদাহ গ্রামে উপজেলা নির্বাচনে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী সোনা শিকদারের লোকজন পেয়াজের ক্ষেত তছরুপ করে। খবর পেয়ে নৌকার সমর্থকরা বাধা দেয়। এ ঘটনার জের দরে মঙ্গলবার সকালে শুরু হয় সংঘর্ষ। শৈলকুপা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, রুপদাহ গ্রামে দীর্ঘদিন ধরেই আ’লীগে নেতা মফিজ ও ফারুকের সমর্থকদের মধ্যে আধিপত্য নিয়ে বিরোধ ছিল। সেই সুত্র ধরে ফারুকের সমর্থক রিপন নৌকা প্রতিকের আব্দুল হান্নানের লোকজনের উপর হামলা চালায়। এতে ১২ জন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এদিকে একই উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে নৌকার পক্ষে কাজ করায় ৩ জনের বাড়িতে হামলা চালানো হয়। এ সময় হাতুড়ি পেটায় ৬ জন আহত হন। এছাড়া সোমবার দিন ব্যাপী শৈলকুপার বগুড়া, ধর্মপাড়া, ভাটই, পাছপাখিয়া ও নাকোইলসহ বিভিন্ন গ্রামে নৌকার সমর্থকদের উপর হামলা ও বাড়িঘর ভাংচুর করা হয়। উল্লেখ্য শৈলকুপায় উপজেলা নির্বাচনে নৌকার পরাজিত প্রার্থী নায়েব আলী জোয়ারদার ও বিজয়ী প্রার্থী শিকদার মোশাররফ হোসেন সোনা উভয় আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হামলায় আহত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ