Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২০ মে ২০১৯, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৪ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

পি৩০ সিরিজে হুয়াওয়ের অভিনবত্ব

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ মার্চ, ২০১৯, ৬:২৫ পিএম

স্মার্টফোন ক্যামেরায় সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সুবিধা ও নান্দনিক ডিজাইন নিয়ে ফ্রান্সের প্যারিসে উন্মোচিত হলো হুয়াওয়ের পি ৩০ ও পি ৩০ প্রো। পি ৩০ সিরিজের এ ফোনগুলোতে থাকছে হুয়াওয়ের দারুণ কিছু উদ্ভাবনী ফিচার। যার মধ্যে রয়েছে- হুয়াওয়ের সুপারস্পেকট্রাম সেন্সর, অপটিক্যাল সুপারজ্যুম লেন্স, হুয়াওয়ের টাইম অব ফ্লাইট ক্যামেরা, কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন প্রযুক্তি। এসব বৈপ্লবিক প্রযুক্তির কারণে হুয়াওয়ের পি ৩০ সিরিজের ফোনগুলো দিয়ে প্রত্যেকটি দৃশ্যের অতুলনীয় ছবি ও ভিডিও পাওয়া যাবে।

হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের সিইও রিচার্ড ইউ বলেন, ডিজিটাল ক্যামেরা টেকনোলজির কয়েক দশকের উন্নয়নের পর হুয়াওয়ের পি ৩০ সিরিজ অপরিহার্যভাবে অনেক বড় সফলতা। এ সিরিজের ফোনগুলো মোবাইল ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে সবার ধারণা পাল্টে দেবে এবং এক্ষেত্রে অভিনবত্ব আনবে। হুয়াওয়ের দারুণ কিছু উদ্ভাবন যেমন; সুপারস্পেকট্রাম সেন্সর এবং সুপারজুম লেন্স ফটোগ্রাফি ও ভিডিওগ্রাফির ক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের যে অনৈক্য রয়েছে এগুলোকে একসূত্রে নিয়ে আসবে। পি ৩০ সিরিজ দিয়ে পরবর্তী প্রজন্মরা সত্যিকার সৌন্দর্য্য ক্যামেরায় ধারন করতে পারবেন।

স্মার্টফোন ফটোগ্রাফিতে গ্রাহকদের যে ধারণা ও প্রত্যাশা সেটা বদলে দেবে হুয়াওয়ের পি ৩০ সিরিজ। মোবাইল ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে র‌্যাংকিং প্রকাশ করা ডিএক্সওমার্ক এর র‌্যাংকিংয়ে ইতোমধ্যে পি ৩০ প্রো সবার শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে। এ সিরিজের ফোনে থাকছে একটি নতুন লেইকা কোয়াড ক্যামেরা সিস্টেম। হুয়াওয়ের সুপার-স্পেকট্রাম সেন্সরসহ থাকছে ৪০ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা, একটি ২০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা, একটি ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা, হুয়াওয়ের টাইম অব ফ্লাইট ক্যামেরা, অনন্য সেলফির জন্য ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হুয়াওয়


আরও
আরও পড়ুন