Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৭ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

স্লোগানে-প্ল্যাকার্ডে মুক্তি দাবি খালেদা জিয়ার

রাজধানীতে বিএনপির বর্ণাঢ্য র‌্যালি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি করেছে বিএনপি। র‌্যালিতে অংশ নেয়া দলের নেতাকর্মীরা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবি করেছেন। র‌্যালিপূর্ব উদ্বোধনী বক্তব্যে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। অন্যদিকে র‌্যালিতে অংশ নেয়া নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি সম্বলিত প্লেকার্ড হাতে নিয়ে সেটিকে জোরালো করেছেন। আর র‌্যালির শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত তারা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে স্লোগানে স্লোগানে প্রকম্পিত করেছেন রাজপথ। গতকাল (বুধবার) বেলা ৩টায় স্বাধীনতা ও বিজয় দিবস উপলক্ষে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে শোভাযাত্রা বের করে দলটির নেতাকর্মীরা। র‌্যালিটি নয়াপল্টন থেকে নাইটেঙ্গেল মোড় ঘুরে পুলিশি বাধার মুখে শান্তিনগর মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।
র‌্যালিতে মহানগর বিএনপি উত্তর-দক্ষিণ, মুক্তিযোদ্ধা দল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, ছাত্রদল, তাঁতী দল, মৎস্যজীবী দল, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন, ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন, এগ্রিকালচারিস্ট অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। তাদের উপস্থিতিতে ফকিরাপুল থেকে নাইটেঙ্গল রেস্তোরাঁ পর্যন্ত গোটা সড়ক জনসমুদ্রে পরিণত হয়। নেতাকর্মীরা লাল-সবুজের জাতীয় পতাকা হাতে নিয়ে এই শোভাযাত্রায় অংশ নেন। বিভিন্ন স্লোগানে সম্বলিত প্লেকার্ড, জাতীয় পতাকা, দলীয় পতাকা, ব্যানার, ফেস্টুন, ট্রাক ও ভ্যান গাড়ি নিয়ে বিএনপি ও এর অঙ্গ-সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। এর মধ্যে মহিলা দলের নেত্রীরা লাল-সবুজের শাড়ি এবং মুক্তিযোদ্ধা দলের নেতাকর্মীরা টুপি এবং গেঞ্জি পড়ে র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন।
তারা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বড় বড় প্রতিকৃতি হাতে নিয়ে ‘স্বাধীনতার ঘোষক জিয়া, লও লও লও সালাম’, ‘রক্ত দিয়ে এনেছি স্বাধীনতা, রক্ত দিয়ে রাখব’, ‘মুক্তি মুক্তি মুক্তি চাই, গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’ স্লোগানে স্লোগানে গোটা এলাকা মুখরিত করে তোলেন তারা। বিএনপির এই র‌্যালিতে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীর উপস্থিতির কারণে র‌্যালির প্রথমভাগ যখন শান্তিনগর মোড়ে পুলিশ বেষ্টনীর কাছে আসে, তখন মিছিলের শেষ ভাগ ছিল কাকরাইলের নাইটেঙ্গেল রেস্তেরাঁর মোড়ে।
র‌্যালির শুরুর আগে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আজকে আমাদের স্বাধীনতাকে কেড়ে নেওয়া হয়েছে, মানুষের মুক্তচিন্তা করার স্বাধীনতা, কথা বলার স্বাধীনতা, লেখার স্বাধীনতা- সেই স্বাধীনতাকে আওয়ামী লীগ এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করে হরণ করেছে।
তিনি বলেন, আজকে দেশ স্বাধীনতা অর্জন করলেও আমরা স্বাধীন নই, আমরা মুক্ত নই। একটা পাথর আমাদের বুকের ওপর চেপে বসেছে। আমাদের নেত্রী দেশনেত্রী যিনি সারাটা জীবন গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন সেই নেত্রীকে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। তিনি অত্যন্ত অসুস্থ, তাকে চিকিৎসা পর্যন্ত দেওয়া হচ্ছে না। আজকে আসুন, এই অত্যাচার, নির্যাতন ও নিপীড়নের মধ্যে দিয়ে দেশে যারা একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে চায় তাদের আমরা অপসারিত করি। সব দলমত নির্বিশেষ ঐক্যসৃষ্টি করি। আমরা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করি। একই সাথে আমরা গণতন্ত্রকে মুক্ত করি। আজকে এই দিনে এই হোক আমাদের শপথ ও অঙ্গীকার। র‌্যালি শুরুর আগে মির্জা ফখরুল ছাড়াও দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বক্তব্য রাখেন।
র‌্যালিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান এজেডএম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবদুস সালাম, ফরহাদ হালিম ডোনার, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আমিনুল হক, আবদুস সালাম আজাদ, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, দেওয়ান মো. সালাহউদ্দিন, আবু আশফাক খন্দকার, কাজী আবুল বাশার, আসানউল্লাহ হাসান, ইশতিয়াক আজিজ উলফাত, সাদেক আহমেদ খান, সাইফুল আলম নিরব, মোরতাজুল করীম বাদরু, নুরুল ইসলাম নয়ন, মামুন হাসান, আনোয়ার হোসাইন, নুরুল ইসলাম খান নাসিম, আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, জেবা আমিন খান, হেলেন জেরিন খান, রফিকুল ইসলাম মাহতাব, আবুল কালাম আজাদ, রাজীব আহসান, আকরামুল হাসানসহ কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেন।#



 

Show all comments
  • শাওন ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১০:০৭ এএম says : 0
    বাংলাদেশ জিন্দাবাদ, শহীদ জিয়া অমর হোক... খালেদা জিয়া জিন্দাবাদ... দেশমাতার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই... তারেক জিয়ার ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই... খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, মুক্তি চাই... হাসিনার পতন হবে নিশ্চয়ই...
    Total Reply(0) Reply
  • অশিক্ষিত সাইফুল ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
    শুধু দাবি করে যান।
    Total Reply(0) Reply
  • বিএনপির ভোটার ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৫ এএম says : 0
    আওয়ামী নেতা তুফায়েল বলে বিএনপি খুজে পাওয়া যাবেনা তুফায়েল কে এই র‍্যালি দেখান বিএনপি কে কুজে পাওয়া যায় কিনা
    Total Reply(0) Reply
  • মাঈনউদ্দিন ঈষাঁণ ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৬ এএম says : 0
    যেখানে হাজার সেখানে লাখের প্রচার এবং লাখের জায়গায় হাজারের প্রচার থেকে বিরত থাকুন।
    Total Reply(0) Reply
  • Jamshed Mazumder ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৮ এএম says : 0
    দেশের একজন সাধারন নাগরিক হিসেবে বলছি- মানবিক এবং অসুস্থতার কারনে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়া উচিৎ।
    Total Reply(0) Reply
  • Islam Shafiqul ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    বিএনপির উচিত গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দেশব্যাপী অসহযোগ আন্দোলন করা। যেমনটা স্বৈরাচার এরশাদের সময় হয়েছিলো।
    Total Reply(0) Reply
  • Bani Israil ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    গনতন্ত্রের মা আপোষহীন নেত্রী দেশনেত্রী সাবেক তিন বারের সফল বৈধ প্রধান মন্ত্রী উন্নয়নে রুপকার বাংলাদেশের মানুষের ভালবাসার আস্থার প্রতিক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Murshed Alam ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    আপনারা যারা আন্দোলন করেনা বলে চিল্লাচ্ছেন! তাদের বলি! অন্যান্য দেশে দেখবেন! জনগন আন্দোলন করলে প্রশাসন জনগনের নিরাপত্তার জন্য জনগনকে পাহারা দেয়! আর আমাদের দেশে আন্দোলন করলে বর্তমানে গুলি ছাড়া লাঠিচার্জও করেনা! ইয়েস! এটি স্বাধীন দেশ
    Total Reply(0) Reply
  • Raihan Rashid ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    ঈদের পর তীব্র আন্দোলন করতে হবে তবেই খালেদা মুক্তি পাবে। তীব্র আন্দোলন ছাড়া মুক্তি সম্ভব নয়। তবে কোন ঈদ সেটাও ঈদের পরে জানিয়ে দেওয়া হবে
    Total Reply(0) Reply
  • Suvro Ahmed ২৮ মার্চ, ২০১৯, ১:৩০ এএম says : 0
    মুক্তি সেটা খোদ বিএনপি নেতাদের আছেতো?শুধু বিএনপি না এদেশের নীতি বর্জিত কিছু সরকারি দলের নেতাকর্মী ছাড়া কারোই প্রকৃত মুক্তি নেই,,সকলেই দাসত্বের শৃঙ্খলে আবদ্ধ।আর মুক্তি চাওয়ার বিষয় নয়, অর্জন করার বিষয়,,আর বার্ধক্যের ভারে নেতিয়ে যাওয়া বিএনপি নেতাদের মাধ্যমে কষ্মিনকালেও তা অর্জিত হবেনা।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খালেদা জিয়া

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ