Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২২ মে ২০১৯, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

হিন্দু সন্ত্রাসীরা শাস্তি পাচ্ছে না ভারতে

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

চলতি মাসের শুরুর দিকে ২০০৭ সালের সমঝোতা এক্সপ্রেস বিস্ফোরণ মামলার চার প্রধান সন্দেহভাজনকে খালাস দেয়ার ঘটনাটি আবারো হিন্দু সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করার ভারত সরকারের প্রতিশ্রুতিকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। পাকিস্তান-ভারতের মধ্য চলাচলকারী ট্রেনটি মৈত্রী এক্সপ্রেস নামেও পরিচিত ছিল। ওই বিস্ফোরণে নিহত হয়েছিল ৬৮ জন। নিহতদের বেশির ভাগই ছিল পাকিস্তানি নাগরিক। বিস্ফোরণটি ভারতের গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর জন্য বড় ধরনের অস্বস্তির কারণ হয়েছিল। নয়া দিল্লি থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে বিস্ফোরণটি ঘটে। এটি ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর পাহারায় থাকার কথা ছিল। ওই সময়কার বিরোধী দল বিজেপি ও কয়েকটি ভারতীয় মিডিয়া হামলার জন্য পাকিস্তানভিত্তিক সন্ত্রাসী গ্রুপগুলোকে দায়ী করেছিল। কিন্তু কংগ্রেস সরকার সুস্পষ্টভাবে বলেছিল যে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার সম্পর্ক উন্নত করার চেষ্টাকে ভণ্ডল করার প্রয়াসে এই হামলা চালানো হয়। সরকার সংকল্প ব্যক্ত করেছিল যে-ই কাজটি করে থাকুক না কেন, তাদের পাকড়াও করা হবে। ভারতের ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির (এনআইএ) তদন্তে দেখা যায়, হামলাটি চালিয়েছিল চার ব্যক্তি: স্বামী অসিমানন্দ, কমল চৌহান, রাজিন্দর চৌধুরী ও লোকেশ শর্মা। তারা সবা হিন্দু উগ্রবাদী গ্রুপ অভিনভ ভারতের সদস্য। সাউথ এশিয়ান মনিটর।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন