Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

কেউ গাফিলতি করলে ব্যবস্থা: এলজিআরডিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০১৯, ৩:২৯ পিএম

এখন থেকে ফায়ার সার্ভিসের সুপারিশ বাস্তবায়নে কাজ করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘কেউ গাফিলতি করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আজ শনিবার দুপুরে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত গুলশান ১ নম্বর ডিএনসিসি মার্কেটের কাঁচাবাজার পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। এলজিআরডিমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এক সময় গরিব ছিলাম। অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বেশিরভাগ অবকাঠামো নির্মিত হয়েছে। কিন্তু এখন সুশৃঙ্খল ব্যবস্থাপনায় আনার জন্য কোনও ছাড় নেই। এই মার্কেটে এর আগেও অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। মার্কেটটার সম্পর্কে দেশবাসী জানেন। এখানে মার্কেট হওয়ার জন্য যেসব ব্যবস্থাপনা থাকার দরকার তার মধ্যে যথেষ্ট গাফিলতি আছে। এর আগে এই মার্কেটটি ভেঙে নতুন মার্কেট তৈরি করার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিভিন্ন আইনি জটিলতা সৃষ্টি করে এই কাজটিকে মন্থর করে দেওয়া হয়েছে। আমার মনে হয়, এই ক্ষতির পরে সবার বোধোদয় হবে ও সরকারকে সহযোগিতা করবে।’

এ সময় সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার আশ্বাসও দেন তিনি।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ৩০ মার্চ, ২০১৯, ৫:২৫ পিএম says : 0
    কেউ গাফিলতি করলে ব্যবস্হা শিরোনাম। এলজিআরডিমন্ত্রী। পর পর কয়েক দিন বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বে আগুনের ভয়াবহতার চিত্র দেখে সারাদেশ জাতি গভীর ভাবে শোকাহত। শৃংখলা নেই আগুন নিবানোর পদ্ধতির য়ার য়ার মনের মত আদেশ উপদেশ দিচ্ছেন। ইতিপূর্বে হাজার হাজার কোটি টাকার বানিজ্য রপ্তানী মুখী গার্মেন্টস পুড়ে শেষ। প্রতিকার কি কেন হলো। তদন্ত প্রতিবেদন কি জারা জানার কথা। হয়তো তারা ও জানেনা। এটি হলো বাস্তবতা। শিরোনাম কেও গাফিলতি করলে ব্যবস্হা। এইপদে থাকলে ভয় লাগানোর জন্য বলেন। এই দেশে কাচা মরিচ পিয়াস রশুন চানাবুট তরকারী রাজনীতির বাহিরে নাই। এই সব নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে য়ায়া শান্তি পায়। তাদের জন্য ভয়াবহ সু সংবাদ। যে কোন দিন। যে কোনো মুহূর্তে শতাব্দীর পুরানো সেতু শত শত মানুষ গাড়ী নিয়ে সাগরে পড়বেন। আমি শতভাগ নিশ্চিতরূপে বলতেপারী । জানতে চান এই চট্রগ্রামের কালু ঘাট সেতু। মন্ত্রী মহোদয় আপনার কথায় জানতে চাই এখানে গাফিলতি কার? আপনী বলবেন সেতু মন্ত্রীর দায়িত্য ঐ এলাকার সাংসদ এই সেতুর জন্য। অনেক কান্নাকাটি করে হয়তো কিছুই করতে পারেনী। পারবেন না। মানবতার মা দেশ রত্ন মা জননীর রাজ দরবারে বিনীত ভাবে অনুরোধ এই সেতুর ব্যপারে প্রয়োজনীয় আদেশ দিবেন। আল্লাহ না করুক যদি শত শত মানুষ মরে তার জন্য আপনাকে কে দোষারোপ করবেন। দয়াকরে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দরবারে বোযালখালী বাসির ফরিয়াদ পৌছানোর জন্য অনুরোধ করছি।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ