Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

মির্জাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন কাল, লড়াই হবে প্রতিদ্বন্ধিতাপূর্ণ

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০১৯, ৭:৫২ পিএম

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন কাল রোববার অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনের জন্য এরই মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে প্রশাসন। এই নির্বাচনে বিএনপি দলীয় কোন প্রার্থী না থাকলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজ হায়দার খানের সঙ্গে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন মন্টুর মধ্যে প্রতিদ্বন্ধিতামূলক নির্বাচনের আশা করছেন ভোটাররা।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র মতে, মির্জাপুর পৌরসভা ও ১৪টি ইউনিয়নে ৩ লাখ ২২ হাজার ৮৯৮ জন ভোটার রয়েছেন। যাদের ভোট গ্রহণের জন্য ১২০টি ভোট কেন্দ্রে ১২০ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ৭৯৫ জন সহকারী প্রিজাইডিং ও ১ হাজার ৫৯০ জন পোলিং কর্মকর্তা নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
মির্জাপুর থানা পুলিশ সূত্র মতে, শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণের জন্য ৫ শতাধিক পুলিশ ও ১ হাজার ৩৪০ জন আনসার সদস্য নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া পুলিশের ৩১টি ভ্রাম্যমান দল আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কাজ করবে বলে জানা গেছে।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক জানান, নির্বাচনে ৫৪ টি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র রয়েছে। শান্তিপূর্ন ভোট গ্রহণে কেন্দ্রগুলোতে বিশেষ নজরদারি রাখা হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আব্দুল মালেক জানান, নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে নিয়োজিত স্ট্রাইকিং ফোর্সকে আইনগত দিক নির্দেশনা প্রদান এবং নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন সংক্রান্ত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার জন্য ছয়জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হবে।
নির্বাচন হবে প্রতিদ্বন্ধিতামূলক

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে চারজনসহ ১০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মীর এনায়েত হোসেন (নৌকা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজ হায়দার খান (মোটরসাইকেল) এর মধ্যে প্রতিদ্বন্ধিতা হবে বলে জানা গেছে। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী রুপা রায় চৌধুরী (আনারস) ও লাল মিয়া (আম) চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম (টিউবওয়েল), উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক মো. সেলিম শিকদার (উড়োজাহাজ) ও উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আজহারুল ইসলাম (তালা) এর মধ্যে প্রতিদ্বন্ধিতা হবে বলে জানা গেছে। এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মীর্জা শামীমা আক্তার (কলস), সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান সালমা সালাম (হাঁস) ও উপজেলা মহিলা দলের সভাপতি (বহিস্কৃত) খালেদা সিদ্দিকী (ফুটবল) নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
উপজেলার বাইমহাটি গ্রামের নজরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মীর এনায়েত হোসেন মন্টু ও ফিরোজ হায়দার খানের মধ্যে লড়াই হবে। তিনি নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়ার প্রত্যাশা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা পরিষদ নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ