Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

নওগাঁয় স্বামী-স্ত্রী ও শিশু সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যু

স্বজনদের হত্যার অভিযোগ

নওগাঁ জেলা সংবাদদাতা ঃ | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার চকজোথরী গ্রামে স্বামী-স্ত্রী ও তাদের একমাত্র শিশু সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। গত শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। গতকাল শনিবার দুপুরে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। নিহতরা হলো চকজোথরী গ্রামের বাসিন্দা অর্জুন কুমার মন্ডল (৩৮) তার স্ত্রী তিথী রানী (২৮) ও তাদের একমাত্র আড়াই বছরের ছেলে সন্তান অরন্য কুমার মন্ডল।

প্রতিবেশীরা জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে আর্তনাদ শুনে ছুটে গিয়ে ঘরের মধ্যে অর্জুন, তিথী ও অরন্যকে ছটফট করতে দেখেন। সেখান থেকে তাদেরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়ার পথেই তিথী রানীর মৃত্যু হয়। নওগাঁ সদর হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায় শিশু অরণ্য ওরফে অর্নব। অর্জুনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনিও মারা যান। প্রতিবেশীরা জানান, ইটের তৈরি একতালা বাড়ির দুটি ইউনিটের একটিতে ছিলো অর্জুনের পরিবার। অন্যটিতে ছোট ভাই অসিমের পরিবার বসবাস করতো। ঘটনার পর থেকে অসিম পরিবারের অন্যদের দেখা পাওয়া যাচ্ছে না। তবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহ থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। খাদ্যে বিষ মিশিয়ে অথবা বিষাক্ত ট্যাবলেট খাওয়ানোর কারণে তাদের মৃত্যু হতে পারে।
এদিকে রহস্যজনক এ মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড দাবি করেছে নিহত তিথি রানীর স্বজনরা। তিথীর মা যমুনা রানী অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল অর্জুনের পরিবারে। জমিজমা নিয়ে ছোট ভাই অসিমের সাথে অর্জুনের দ্ব›দ্ব ছিল। এ নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া ঝাটি হতো তাদের মধ্যে। এরই জেরে খাবারের সাথে বিষ খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে। দোষিদের শাস্তি চেয়ে মামলা করবেন জানান তিনি।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহ. আশরাফুল ইসলাম জানান, রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ। নিহতদের পরিবারের অন্য সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ, আলামত ও ময়নাতদন্ত রিপোর্টের ভিত্তিতে দ্রুতই রহস্য উদঘাটন করা হবে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনা হয়ে থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে জানান তিনি।
অপর দিকে নওগাঁর আত্রাইয়ে কীটনাশক গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে শ্রীমতি বুলবুলি রাণী (৪৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। নিহত বুলবুলি রাণী উপজেলার ভোঁপাড়া গ্রামের তিলাবাদুরি গ্রামের শ্রী সনীল চন্দ্র প্রামানিকের স্ত্রী। স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার দুপুরে তিনি পরিবারের লোকজনের অজান্তে কীটনাশক গ্যাস ট্যাবলেট খায়। বিষয়টি পরিবারের লোকজন টের পেলে সঙ্গে সঙ্গে তাকে রাণীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি জন্য নিয়ে যাওয়ার সময় পথেই তার মুত্যু হয়।
এ ব্যাপারে আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: মোবারক হোসেন জানান, বুলবুলি রাণী কীটনাশক গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ঋণের বিষয়টি আমার জানা নেই। তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন তার মৃত্যুর বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রহস্যজনক মৃত্যু


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ