Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২২ মে ২০১৯, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৬ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মেসি-রোনালদোর মতো হতে চান কেন

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

আন্তর্জাতিক বিরতি থেকে ফেরাটা চ্যাম্পিয়নসুলভ হয়নি জুভেন্টাসের। লিগে টিকে থাকার জন্য লড়তে থাকা এম্পোলির বিপক্ষে জয় পেতে বেশ বেগ পোহাতে হয়েছে সেরি আ জায়ান্টদের। শেষ পর্যন্ত ইতালির তরুণ স্ট্রাইকার মইজে কেনের গোলে স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রির দল।
পরশু তুরিনের আলিয়েঞ্জ স্টেডিয়ামে সফরকারী এম্পোলিকে ১-০ গোলে হারায় জুভেন্টাস। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামার তৃতীয় মিনিটের মাথায় মারিও মানজুকিচের পাস থেকে একমাত্র গোলটি করেন ১৯ বছর বয়সী কেন। আগের ম্যাচে জেনোয়ার মাঠে লিগ মৌসুমে প্রথম হারের স্বাদ নিয়ে আন্তর্জাতিক বিরতিতে যায় জুভেন্টাস। এক ম্যাচ বাদেই জয়ে ফিরে টানা অষ্টম লিগ শিরোপার পথে অনেকটা এগিয়ে গেল ‘ওল্ড লেডি’ খ্যাত দলটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা নাপোলির চেয়ে তারা ১৮ পয়েন্টে এগিয়ে। বাকি ৯ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট পেলেই শিরোপা নিশ্চিত হবে জুভাদের।
দলকে জয়ের ধারায় ফেরাতে পেরে উচ্ছ¡সিত কেন বলেন, ‘আমি মেসিও নই, রোনাল্ডোও নই। কিন্তু একদিন আমি অবশ্যই তাদের মত হবার স্বপ্ন দেখি।’
ভাবি তারকা সম্পর্কে কোচ মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রির অভিমত, ‘দিবালার স্থানে রডরিগো বেনটানকারকে নামিয়ে কিনের ওপর থেকে চাপ কমানোর চেষ্টা তিনি করেছেন। এ সম্পর্কে আলেগ্রি বলেন, ‘ইতালির হয়ে দুই গোল করা খুব একটা সহজ কাজ নয়। সার্বিকভাবে দেখতে গেলে জাতীয় দলে একজন খেলোয়াড়কে অনেক বেশি মানসিক ও শারিরীকভাবে সুস্থ থাকতে হয়। কেন মাত্রই আন্তর্জাতিক দায়িত্ব শেষে দলে ফিরেছে। একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়ের সব ধরনের গুনাবলী তার মধ্যে আছে।’ আন্তর্জাতিক বিরতিতে ইতালির হয়ে ২ গোল করে আসা উঠতি ফরোয়ার্ডের লিগে গোল হলো তিনটি।
উরুর চোটের কারণে এদিন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর না থাকাটা আগে থেকেই নিশ্চিত ছিল। ম্যাচের আগে শরীর গরমের সময় একই চোট নিয়ে ছিটকে পড়েন পাওলো দিবালাও। ঘরের মাঠে আক্রমণভাদের দুই তারকার অনুপস্থিতি ছিল স্পষ্ট। গতিহীন সাদামাটা ফুটবল যাকে বলে। বলের দখলেও তারা ছিল পিছিয়ে।
প্রথমার্ধে উল্লেখ করার মত একটা সুযোগই পায় তারা। কিন্তু ঝাঁপিয়ে মানজুকিচের হেড রুখে দেন গোলরক্ষক। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে অ্যালেক্স সান্দ্রোর ক্রসে নেওয়া ফেদেরিকো বের্নাদেস্কির ভলি ক্রসবারে লাগে।
৬৯তম মিনিটে মাতুইদির বদলি নামের কেন। এর তিন মিনিট পরই তরুণ ফরোয়ার্ড পেয়ে যান গোলের দেখা। হেডে বাড়ানো মানজুকিচের বল সরাসরি শটে জালে পাঠিয়ে দেন ১৯ বছর বয়সী। এম্পোলি জুভন্টাসের পোস্ট বরাবর কোন শটই নিতে পারেনি।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মেসি


আরও
আরও পড়ুন