Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

চতুর্থ ধাপের উপজেলা নির্বাচনে জিতলেন যারা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০১৯, ১১:৩৯ এএম | আপডেট : ১১:৪০ এএম, ১ এপ্রিল, ২০১৯

পঞ্চম উপজেলা পরিষদের চতুর্থ ধাপের বেশিরভাগ উপজেলায় আওয়ামী লীগ সমর্থিতরা বিজয়ী হয়েছেন। রবিবার এ ধাপে ২২ জেলার ১০৭টি উপজেলায় ভোট হয়। এর মধ্যে ৬টি জেলার সদর উপজেলায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম-এর মাধ্যমে ভোট হয়েছে। অনিয়মের কারণে কুমিল্লার তিতাস উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

নির্বাচন কমিশন এ ধাপে ১২২টি উপজেলার নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছিল। কিন্তু ১৫টি উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানও নারী ভাইস-চেয়ারম্যান-এ তিন পদেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়। ফলে ওই ১৫টি উপজেলায় ভোট হয়নি। এছাড়া আদালতের আদেশে চারটি ও অবৈধ প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে দুইটি উপজেলার নির্বাচন স্থগিত করা হয়। আর তৃতীয় ধাপ থেকে স্থানান্তর করা ৬টি উপজেলা এ ধাপে যোগ হয়। ইসির তথ্য অনুসারে এ ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছেন মোট ৮৮ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩৯, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২২ ও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৭ জন।

গত তিনধাপের মতো এই ধাপেও ভোট পড়তে পারে ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশের মতো। গত ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত ১১৬ উপজেলায় ভোট পড়ে ৪১ দশমিক ৪১ শতাংশ। গত ১৮ মার্চ ১১৬ উপজেলায় দ্বিতীয় ধাপে ভোট পড়ে ৪১ দশমিক ২৫ শতাংশ এবং গত ১০ মার্চ প্রথম ধাপের ৭৮টি উপজেলায় ভোট পড়েছিল ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ। বিএনপিসহ সরকার বিরোধী পক্ষগুলো নির্বাচন বর্জন করায় এবারের উপজেলা নির্বাচন একতরফা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সব জায়গায় আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ। ফলে নির্বাচনের জৌলুস হারায় উপজেলা ভোট। নির্বাচনে মাঠে প্রভাবশালীদের প্রভাব বিস্তারের ঘটনাও ঘটে।

উপজেলা নির্বাচনের চতুর্থধাপে নির্বাচিতরা হলেন, পটুয়াখালী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. গোলাম সরোয়ার (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) সৈয়দ মো. সোহেল, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) সোহানা হোসেন (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), দশমিনা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আব্দুল আজিজ (আওয়ামী লীগ) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) নাসির উদ্দিন পাহলান, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শামসুন্নাহার খান ডলি, গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান মু. শাহীন শাহ (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মো. নিজাম উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ওয়ানা মার্জিয়া মিতু, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম রাকিবুল আহসন (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মো. শফিকুল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শাহীনা পারভীন, মির্জাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান খান মো. আবু বকর সিদ্দিকী (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) জহিরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) হাসিনা বেগম, দুমকী উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ হাওলাদার (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) এইচএম মাসুদ আল মামুন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফরিদা ইয়াসমিন ও বাউফল উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব হাওলাদার (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মো. মোশারেফ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মোসা. মরিয়ম বেগম।

বরগুনার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মনিরুল ইসলাম মনির (স্বতন্ত্র), আমতলী উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম সরোয়ার ফোরকান (বিদ্রোহী), বেতাগী উপজেলা চেয়ারম্যান মাকসুদুর রহমান ফোরকান (আওয়ামী লীগ), বামনা উপজেলা চেয়ারম্যান সাইতুল ইসলাম লিটু মৃধা (আওয়ামী লীগ) ও পাথরঘাটা উপজেলায় চেয়ারম্যান মস্তফা গোলাম কবীর (বিদ্রোহী)।

ভোলার দৌলতখান উপজেলা চেয়ারম্যান মনজুর আলম খান (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), তজুমদ্দিন উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন দুলাল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), লালমোহন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. গিয়াস উদ্দিন আহমেদ (আওয়ামী লীগ।

পিরোজপুরের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মুজিবুর রহমান খালেক (আওয়ামী লীগ), ইন্দুরকানি উপজেলা চেয়ারম্যান মতিউর রহমান (আওয়ামী লীগ), কাউখালী উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সাঈদ মিয়া মনু (জাতীয় পার্টি জেপি), নেছারাবাদ (স্বরূপকাঠি) উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক (স্বতন্ত্র) ও নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার (আওয়ামী লীগ), ভাণ্ডারিয়া মিরাজুল ইসলাম মিরাজ (আওয়ামী লীগ মনোনীত ও জেপি সমর্থিত, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়)।

যশোরের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন চাকলাদার (আওয়ামী লীগ), বাঘারপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), চৌগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান ড. মোস্তানিছুর রহমান লাড্ডু (আওয়ামী লীগ), অভয়নগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ ফরিদ জাহাঙ্গীর (আওয়ামী লীগ) মনিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম (আওয়ামী লীগ) ও কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী রফিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী)। শার্শায় সিরাজুল হক মঞ্জু (আওয়ামী লীগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়)।

খুলনার দিঘলিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ মারুফুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মোহাম্মদ আলী রেজা বাঁচা, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মমতাজ শিরিন ময়না, কয়রা উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম শফিকুর ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) অ্যাডভোকেট কমলেশ কুমার সানা, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) নাসিমা আলম, দাকোপ উপজেলা চেয়ারম্যান মুনসুর আলী খান (স্বতন্ত্র), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) গৌরপদ বাছাড়, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) খাদিজা আক্তার, পাইকগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ আলী (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শেহাব উদ্দিন ফিরোজ বুলু, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) লিপিকা ঢালী, রুপসা উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন বাদশা (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) আব্দুল্লাহ জুবায়ের, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফারহানা আফরোজ মনা, তেরখাদা উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শারাফাত হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) নাজমা খান, ফুলতলা উপজেলা চেয়ারম্যান আকরাম হোসেন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) কেএম জিয়া হাসান তুহিন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফারজানা ফেরদৌসী নিশা ও বাটিয়াঘাটা উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম খান (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) নিতাই গাইন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) চঞ্চলা মণ্ডল।

বাগেরহাট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) খান রেজাউল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) রিজিয়া পারভীন, মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মো. ইকবাল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) কামরুন্নাহার হাই, মোরেলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শাহ ই আলম বাচ্চু (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মোজাম্মেল হক মোজাম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফাহিমা সাবুল, চিতলমারী উপজেলা চেয়ারম্যান অশোক বড়াল (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) এসএম মাহাতাবুজ্জামান, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) স্বপ্না সুলতানা, কচুয়া উপজেলা এসএম মাহফুজুর রহমান (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) ফিরোজ সিকদার, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) নাজমা সরোয়ার, রামপাল উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) নূরুল হক লিপন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) হোসনেয়ারা মিলি, ফকিরহাট উপজেলা চেয়ারম্যান স্বপন দাস (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শেখ মাস্তোহিদ সুজা, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) তহুরা খানম, মোল্লাহাট উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনুল আলম ছানা (আওয়ামী লীগ) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) সেলিম রেজা, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) রুবিয়া বেগম ও শরণখোলা উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন আকন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) হাসানুজ্জামান পারভেজ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) রাহিমা আক্তার হাসিন।

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মাহমুদুল হক সায়েম (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) অ্যাডভোকেট মো. শাখাওয়াত হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মিসেস ঝর্ণা ঘোষ, ধোবাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী)। ফুলপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল করিম রাসেল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সুমন (আওয়ামী লীগ), ফুলবাড়ীয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক সরকার (আওয়ামী লীগ), গৌরীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন খান (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), নান্দাইল উপজেলা চেয়ারম্যান হাসান মাহমুদ জুয়েল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), মুক্তাগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হাই আকন্দ (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) আলহাজ আরব আলী, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মুর্শিদা আক্তার কাকলি, ভালুকা উপজেলায় চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজদ (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ময়মনসিংহ সদর উপজেলা আশরাফ হোসাইন (আওয়ামী লীগ) ও গফরগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদল।

নরসিংদী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ সফর আলী ভূইয়া (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) কফিল উদ্দিন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শাহিদা বেগম।

মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমদ (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মইনুল হাসান নাহিদ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) অ্যাডভোকেট তাহমিনা আক্তার তুহিন, লৌহজং উপজেলা চেয়ারম্যান ওসমান গনি তালুকদার গনি (আওয়ামী লীগ), শ্রীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান মশিউর রহমান মামুন (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), টঙ্গীবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান জগলুল হালদার ভুতু (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) নাহিদ খান, গজারিয়া তিন কেন্দ্র স্থগিত ও মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনিসুজ্জামান (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) নাজমুল হাসান সোহেল, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) হাসিনা গাজী)।

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা চেয়ারম্যান মুজাহিদুর রহমান হেলু সরকার (আওয়ামী লীগ) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) রফিকুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ঝর্না রহমান, সোনারগাঁও উপজেলা চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) বাবুল ওমর, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মাহমুদা আক্তার ফেন্সি ও রূপগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান ভূইয়া (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) সোহেল আহমেদ ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফেরদৌস আলম নীলা।

আরো পড়ুন : এফআর টাওয়ার হেলে পড়েছে, স্লাব ও বিমে ফাটল

টাঙ্গাইলের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহজাহান আনসারী (আওয়ামী লীগ), ধনবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশিদ হিরা (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শামসুল হুদা, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) খন্দকার জেবুন্নাহার লিনা, মধুপুর উপজেলা চেয়ারম্যান সরোয়ার আলম খান আবু (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শরীফ আহমেদ নাসির, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) জস্টিনা নকরেক, মির্জাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মীর এনায়েত হোসেন মন্টু (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মো. আজাহারুল ইসলাম সিকদার আজাহার, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মীর্জা শামীমা আক্তার শিফা। দেলদুয়ার উপজেলা চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান মারুফ (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), নাগরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ দুলাল (স্বতন্ত্র), ঘাটাইল উপজেলা চেয়ারম্যান.. ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ).., ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা)..,, ভুঞাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম, কালিহাতী উপজেলা চেয়ারম্যান আনসার আলী বি.কম (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) আক্তারুজ্জামান, গোপালপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ইউনুস ইসলাম তালুকদার (আওয়ামী লীগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) রেজাউল করিম, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মরিয়ম আক্তার মুক্তা, বাসাইল উপজেলায় চেয়ারম্যান কাজী অলিদ ইসলাম (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও সখীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার কামাল লেবু (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শফিউল ইসলাম বাদল, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) জাহানারা লুত্ফা আনোয়ার।

কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত। মুরাদনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ড. আহসানুল আলম কিশোর (আওয়ামী লীগ), বুড়িচং উপজেলা চেয়ারম্যান আখলাক হায়দার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আবু তাহের (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) ও হোমনা উপজেলা চেয়ারম্যান রেহানা বেগম (আওয়ামী লীগ। চান্দিনা স্থগিত।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ওমর ফারুক বাদশা (আওয়ামী লীগ), সেনবাগ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহমদ চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), সোনাইমুড়ী উপজেলায় চেয়ারম্যান খন্দকার রুহুল আমিন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), সুবর্ণচর উপজেলায় চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ খায়রুল আনম সেলিম (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়) ও চাটখিল উপজেলায় চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির (আওয়ামী লীগ), কোম্পানিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহাবুদ্দিন (আওয়ামী লীগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়)।

ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল আলিম (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), সোনাগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), দাগনভূঁঞা উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ফেনী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান বি.কম (আওয়ামী লীগ)।

দিনাজপুরের সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ইমদাদ সরকার (আওয়ামী লীগ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) কিশোর কুমার রায়, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) জেসমিন আরা জোত্স্না।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ প্রধান (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) শরিফুল ইসলাম তাজু, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শাকিলা বেগম।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) আব্দুল লতিফ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) মোসাম্মত্ জান্নাতী বেগম।

চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) এম. ইব্রাহিম কবির, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) জেসমিন আক্তার।

কক্সবাজার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) রশিদ মিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) হামিদা তাহের।

ঢাকার ধামরাই স্থগিত, দোহার উপজেলায় চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেন (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) সোজাহার বেপারী, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শামীমা ইসলাম বীথি ও নবাবগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) তাবির হোসেন খান পাবেল, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ইয়াসমিন আক্তার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজুর রহমান (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) অ্যাডভোকেট লোকমান হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শামীম আরা, আখাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাসেম ভূইয়া (আওয়ামী লীগ, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) মুরাদ হোসেন ভূইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) আলেয়া বেগম, নাসিরনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. রাফিউদ্দিন আহমেদ (আওয়ামী লীগ), ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) ফয়েজ আহমেদ চিশতি, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) রুবিনা আক্তার। নবীনগর উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান (আওয়ামী লীগ, বিদ্রোহী) ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) কবির আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) শিউলি রহমান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: উপজেলা পরিষদ নির্বাচন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ