Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

নোয়াখালীর সূবর্ণচরে গণধর্ষণ: গ্রেফতার আরও তিনজন

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ এপ্রিল, ২০১৯, ৭:৩১ পিএম

রবিবার রাতে সূবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের মধ্যচরবাগ্যায় ৬ সন্তানের জননীকে (৩৫) গণধর্ষণ অভিযোগে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে ৫ আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে লক্ষীপুর জেলার রামগতি উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৩জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলো, উত্তর চরবাগ্যা গ্রামের সেকান্তর আলীর ছেলে রুবেল (২২), আবুল কাসেমের ছেলে রায়হান (১৮) ও ইউসুফ মাঝির ছেলে আরমান হোসেন। এর আগে সোমবার ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী আবুল বাসার (৩০) ও ইউসুফ মাঝি (৪২) কে গ্রেফতার করে। বুধবার আসামীদের রিমান্ডের তারিখ নির্ধারণ করে আদালত।

উল্লেখ্য, চতুর্থ পর্যায়ে উপজেলা নির্বাচনে ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে ভিকটিম ও তার স্বামী রবিবার সন্ধ্যায় হোন্ডা যোগে বাড়ি যাবার পথে ভাইস চেয়ারমান প্রার্থী তালা প্রতীকের সমর্থক ইউসুফ মাঝির নেতৃত্বে ১০/১২ জন সন্ত্রাসী হোন্ডার গতিরোধ করে ভিকটিম ও তার স্বামীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে ভিকটিমকে টেনেহিঁচড়ে আরেক ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামী রুহুল আমিন মেম্বারের মৎস খামারে নিয়ে ভিকটিমকে গণধর্ষন করে। পরে স্বামীর চিৎকারে এলাকাবাসী ঘটনাস্থল পৌছে গুরুতর আহতাবস্থায় ধর্ষিতাকে উদ্বার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।
উক্ত ঘটনায় সোমবার রাতে ভিকটিমের স্বামী আবুল বাসারকে প্রধান আসামীসহ আট জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও চারজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গ্রেফতার

৩ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ