Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

প্রশ্ন: তাবলীগ-এর প্রয়োজনীয়তা কি?

উত্তর দিচ্ছেন: মুফতী মোঃ আব্দুল্লাহ | প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

উত্তর: (৪) হযরত আয়েশা সিদ্দীকা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, প্রিয়নবী (স) আমার কাছে গৃহে প্রবেশ করলেন। তখন আমি তাঁর চেহারা দেখে বুঝতে পারলাম, একটা কিছু ঘটেছে! তিনি উযূ করলেন, কারও সঙ্গে কথা বললেন না। আমি হুজরার সঙ্গে ঘেঁষে কান পেতে, তিনি কি বলেন, তা শোনার জন্য দাড়িয়ে রইলাম। তিনি মিম্বরে আরোহণ করে বসলেন,তারপর আল্লাহ্র প্রশংসা ও গুণগান করলেন এবং ইরশাদ করলেন,“ হে লোকসকল! নিশ্চয় আল্লাহ তা‘আলা তোমাদেরকে বলছেন,‘তোমরা সৎকাজের আদেশ ও অসৎকাজে নিষেধ করতে থাকো, ওই পরিস্থিতির পূর্বে যে, তোমরা আমার কাছে প্রার্থনা করবে, আমি তোমাদের দু‘আ কবূল করবো না ; তোমরা আমার কাছে চাইবে, আমি তোমাদের চাহিদা পূর্ণ করবো না;এবং তোমরা আমার কাছে(শত্রæর বিরুদ্ধে) সাহায্য চাইবে, আমি তোমাদেরকে সাহায্য করবো না। এর চেয়ে বেশি কিছু না বলে, নবীজী (স) মিম্বর থেকে নেমে গেলেন।”(প্রাগুক্ত)
(৫) হযরত আবূ হুরায়রা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ্ (স) ইরশাদ করেছেন, “আমার উম্মত যখন দুনিয়াকে বড় করে দেখবে, তাদের অন্তর থেকে ইসলাম-এর প্রভাব ও বড়ত্ব তুলে নেওয়া হবে। তারা যখন সৎকাজের আদেশ ও অসৎকাজে নিষেধ ছেড়ে দেবে,তখন ওহীর বরকত থেকে তাদেরকে বঞ্চিত করে দেওয়া হবে। আর আমার উম্মত যখন পরস্পর গাল-মন্দে জড়িয়ে পড়বে, আল্লাহর রহমতের দৃষ্টি থেকে দুরে ছিটকে পড়বে।”(হাকিম,তিরমিযী)
মহান আল্লাহ্ আমাদেরকে শরীয়তের মাপকাঠি অনুযায়ী ‘দা’ওয়াত ও তাবলীগ’-এর কাজের গুরুত্ব বোঝার এবং সেই অনুযায়ী আমল করার তাওফীক দান করুন। আমীন!



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন


আরও
আরও পড়ুন